ঢাকা | এপ্রিল ২৪, ২০২৪ - ২:২৮ পূর্বাহ্ন

সিটি নির্বাচন: গণমাধ্যমকে না জানিয়েই মনোনয়নপত্র তুললেন দুই দলের প্রার্থী

  • আপডেট: Sunday, May 14, 2023 - 9:15 pm

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপি না এলেও ভোটযুদ্ধে থাকছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে। আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সবার আগে। আজ রোববার পর্যন্ত মনোনয়নপত্র নিয়েছেন আরও দুই দল জাতীয় পার্টি (জাপা) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী।

গণমাধ্যমকে না জানিয়ে অনেকটা নীরবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও দু’জনই জানিয়েছেন শেষ পর্যন্ত তারা ভোটের মাঠে থাকবেন। এ ছাড়া বিএনপির সাবেক নেতা সাহিদ হাসান দ্রুতই মনোনয়নপত্র নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।

নির্বাচন কমিশন থেকে জানা যায়, গত ৭ মে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামালের নেতৃত্বে বর্তমান মেয়র লিটনের পক্ষে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়। এরপর গণমাধ্যমকে না জানিয়েই মনোনয়নপত্র নেন জাপা প্রার্থী দলের রাজশাহী মহানগর শাখার আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম স্বপন। আর আজ রোববার ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মুর্শিদ আলমও নীরবে মনোনয়নপত্র নেন।

ইসলামী আন্দোলনের নেতারা অবশ্য জানিয়েছেন, এখনও মাঠে না নামলেও তাঁরা শেষ পর্যন্ত ভোটযুদ্ধে থাকছেন।

দলের প্রার্থী মুর্শিদ আলম বলেন, প্রতীক পাওয়ার পরই নির্বাচনী প্রচারে নামব। এখন প্রচারণায় নামলে আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে।

জাপা প্রার্থী সাইফুল ইসলাম বলেন, জাতীয় পার্টি রাজশাহী সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেছে। রাজশাহীবাসী জাতীয় পার্টির পক্ষে আছে। এবার খুব ভালো সাড়া পাচ্ছি। সুষ্ঠু ভোট হলে আমাদের ফলাফল ভালো হবে।

এদিকে মনোনয়নপত্র তোলার ইচ্ছে প্রকাশ করলেও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহিদ হাসান আজ রোববার পর্যন্ত সংগ্রহ করেননি। তিনি বলেন, আর দু’দিন পরই মনোনয়নপত্র তুলব। তখন বিস্তারিত কথা হবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও দলের মনোনীত প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন চাই। আর আগেই বলেছি ফাঁকা মাঠে গোল করতে চাই না। আশা করছি, উৎসবমুখর পরিবেশে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন হবে।

তিনি জানান, আগামী ১৮ মে সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবে পদত্যাগ করবেন। ১৯ মে এটি কার্যকর হবে।

সোনালী/জেআর