ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ১:২৭ অপরাহ্ন

রাজধানীতে নতুন কূটনৈতিক মিশন বাড়ানোর চেষ্টা

  • আপডেট: Saturday, March 11, 2023 - 4:35 pm

অনলাইন ডেস্ক: ঢাকায় বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিক মিশন বাড়ানোর চেষ্টা করছে সরকার। সে লক্ষ্যে দীর্ঘ দিন ধরে বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে আলোচনাও চালিয়ে যাচ্ছে।

ইতোমধ্যেই কয়েকটি দেশ ঢাকায় নতুন মিশনও খুলেছে। এছাড়াও আরও কয়েকটি দেশ মিশন খোলার উদ্যোগও নিয়েছে।

দীর্ঘ ৪৫ বছর পর গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় কূটনৈতিক মিশন খোলে আর্জেন্টিনা। গত ফুটবল বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে বাংলাদেশের ভক্তরা অকুণ্ঠ সমর্থন দূতাবাস খুলতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। এবার আরও কয়েকটি দেশ ঢাকায় মিশন খোলার উদ্যোগ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে মেক্সিকো, উজবেকিস্তান ও পোল্যান্ড।

মেক্সিকো:

মেক্সিকোতে বাংলাদেশের দূতাবাস থাকলেও ঢাকায় দেশটির কোনো দূতাবাস নেই। লাতিন আমেরিকার এ দেশটি এবার বাংলাদেশে দূতাবাস খুলতে যাচ্ছে। চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে মেক্সিকো বাংলাদেশে দূতাবাস খুলবে বলে জানিয়েছে।

উজবেকিস্তান:

তাশখন্দে বাংলাদেশের দূতাবাস থাকলেও ঢাকায় উজবেকিস্তানের কোনো দূতাবাস নেই। বেশ কয়েক বছর ধরে উজবেকিস্তানকে অনুরোধ করা হয়, ঢাকায় দেশটি যেন তাদের মিশন খোলে। উজবেকিস্তানও ঢাকায় মিশন খোলার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

সূত্র জানায়, চলতি বছরের শেষে উজবেকিস্তান ঢাকায় দেশটির মিশন খুলতে পারে।

পোল্যান্ড:

বাংলাদেশ ও পোল্যান্ড উভয় দেশেই কূটনৈতিক মিশন ছিল। তবে ২০০২ সালে পোল্যান্ডে বাংলাদেশের দূতাবাস বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর তিন বছর পর ২০০৫ সালে পোল্যান্ডও ঢাকায় দূতাবাস বন্ধ করে দেয়। এরপর বাংলাদেশ ২০১৫ সালে পোল্যান্ডে দূতাবাস খোলে। তারপর থেকেই পোল্যান্ডের কাছে ঢাকায় মিশন খোলার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। পোল্যান্ডও আশ্বাস দিয়েছে খুব শিগগিরই বাংলাদেশে তাদের মিশন খুলবে।

রাজধানীতে বিভিন্ন দেশের মোট ৫১টি দূতাবাস ও হাইকমিশন রয়েছে। এছাড়া ভারতের ৩৪টি মিশনে বাংলাদেশে দায়িত্বপ্রাপ্ত অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত রয়েছেন। তারা ভারত থেকে বাংলাদেশের সঙ্গে কূটনৈতিক কার্যক্রম চালিয়ে যান।

এদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা, কেনিয়া, পর্তুগাল, রোমানিয়া প্রভৃতি দেশকেও বিভিন্ন সময়ে ঢাকায় মিশন খোলার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এসব দেশ থেকেও ঢাকায় মিশন খোলার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

ঢাকায় নতুন নতুন কূটনৈতিক মিশন খোলার বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আমরা বিভিন্ন দেশকে ঢাকায় মিশন খোলার জন্য অনুরোধ জানিয়েছি। ইতোমধ্যেই আর্জেন্টিনা ঢাকায় মিশন খুলেছে। মেক্সিকোসহ আরও বেশ কয়েকটি দেশ এ বিষয়ে ইতিবাচক আশ্বাসও দিয়েছে। বিদেশে আমরা যেমন আমাদের মিশন বাড়াতে চাই, আমরাও চাই ঢাকায় অন্যদের মিশন বাড়ানো হোক। ঢাকায় কূটনৈতিক মিশন বাড়লে উভয় দেশের জন্যই ভালো হবে।

 

সোনালী/জেআর