ঢাকা | মে ৩০, ২০২৪ - ৩:৫২ অপরাহ্ন

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতা ‘গণহত্যা’: যুক্তরাষ্ট্র

  • আপডেট: Monday, March 21, 2022 - 1:22 pm

অনলাইন ডেস্ক:  মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর বহু বছর ধরে চলা দেশটির সামরিক বাহিনী কর্তৃক চালানো সহিংসতা, নির্যাতন-নিপীড়নকে ‘গণহত্যা’ বলে ঘোষণা করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

স্থানীয় সময় রোববার মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটেনের দ্য গার্ডিয়ান অনলাইন এ খবর জানিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক মার্কিন কর্মকর্তা জানান, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এন্থনি ব্লিনকেন স্থানীয় সময় সোমাবার যুক্তরাষ্ট্রের হলোকাস্ট মিউজিয়ামের এক অনুষ্ঠানে এ পরিকল্পনা ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণার বিষয়ে মার্কিন প্রশাসনের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

২০১৭ সালে আগস্ট মাসের শেষ দিকে রাখাইনে নতুন করে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন, হত্যা-ধর্ষণ শুরু করে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। রোহিঙ্গাদের হাজার হাজার বাড়িঘর পুড়িয়ে দেয়া হয়।

সে সময় অং সান সু চি নেতৃত্বাধীন কথিত গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় থাকলেও তারা রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো এ সহিংসতা ঠেকাতে পারেননি।

ওই সামরিক অভিযানের জেরে কয়েক হাজার রোহিঙ্গা নিহত হয়েছিলেন বলে ধারণা করা হয়। তবে প্রকৃত সংখ্যা এখনও জানা যায় না।

হত্যা-নিপীড়ন এড়াতে মিয়ানমার ছেড়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা। বর্তমানে তারা টেকনাফে বিভিন্ন রোহিঙ্গা শিবিরে অবস্থান করছেন।

রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো নির্যাতনের জেরে ইতোমধ্যে মিয়ানমারের ওপর বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ‘গণহত্যা’ ঘোষণা করা হলে এটা মিয়ানমার সরকারের ওপর অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগ করবে।

ইতোমধ্যে দ্য হেগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) রোহিঙ্গা গণহত্যা ইস্যুতে মিয়ানমারের বিচার চলছে।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো সহিংসতাকে স্বাগত জানিয়েছেন ওরেগন থেকে নির্বাচিত ডেমোক্র্যাটিক দলের সিনেটর জেফ মার্কলি।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো বর্বর গণহত্যাকে অবশেষে স্বীকৃতি দেয়ার জন্য আমি বাইডেন প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই।’