ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪ - ১০:৪৬ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে নানা আয়োজনে নারী দিবস উদযাপন

  • আপডেট: Tuesday, March 8, 2022 - 11:35 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে নানা আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন করা হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে মঙ্গলবার রাজশাহীতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা। এরমধ্যে জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে ‘টেকসই আগামীর জন্য, জেন্ডার সমতাই আজ অগ্রগণ্য’ প্রতিপাদ্যে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এদে সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ আদিবা আনজুম মিতা প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল।

বক্তব্য রাখেন, সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, জাতীয় মহিলা সংস্থার রাজশাহীর চেয়ারম্যান বেগম মর্জিনা পারভীন প্রমুখ। আলোচনা সভায় বক্তারা নারী নির্যাতন, বাল্যবিবাহসহ নারীর প্রতি সকল প্রকার বৈষম্য নিরসনে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

সভা শেষে পাঁচজন সফল নারী উদ্যোক্তাকে সম্মাননা প্রদান করা হয় এবং বেসরকারি সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্টের (এসিডি) মাধ্যমে ৮টি কিশোর-কিশোরী ক্লাবের পেয়ার লিডারদের হাতে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও কারাগারের রোজনামচা বই উপহার হিসাবে তুলে দেওয়া হয়।

বিকালে ব্র্যাকের উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জয়া মারিয়া পেরেরা। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের রাজশাহীর উপপরিচালক শবনম শিরিন। সভাপতিত্ব করেন ব্র্যাকের জেলা সমন্বয়ক মহসিন আলী। ব্র্যাকের ‘জেন্ডার জাস্টিস অ্যান্ড ডাইভারসিটি কর্মসূচি’র আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মেহেদী হাসানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন- ব্র্যাক কর্মকর্তা কৌশিক বিশ^াস সাগর, জেলা পরিষদ সদস্য রাবিয়া খাতুন সীমা প্রমুখ। পরে নারীর অধিকার নিশ্চিতের দাবিতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে একটি মানববন্ধন হয়।

এদিকে, নারীর সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) রাজশাহীর সহযোগিতায় বিভিন্ন সংস্থা র‌্যালি, মানববন্ধন ও পথসভা করেছে। সকালে র‌্যালিটি নগরীর আলুপট্টি মোড় থেকে শুরু হয়ে সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে পথসভার মাধ্যমে শেষ হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক কল্পনা রায়। প্রধান অতিথি ছিলেন নগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) সুজায়েত ইসলাম।

কর্মসূচিতে রাজশাহী নগর পুলিশ, মহিলা পরিষদ, জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি, বরেন্দ্র উন্নয়ন প্রচেষ্টা, বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট, পরিবর্তন, হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডারস নেটওয়ার্ক, পার্টনার, এডাব, ওয়েব, মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন, অনগ্রসর সমাজ উন্নয়ন সংস্থা, নিষ্কৃতি ফাউন্ডেশন, তৃণমূল, রুলফাও, দিনের আলো হিজড়া সংঘ এবং রাজশাহী মানবাধিকার জোট অংশগ্রহণ করে।

এ ছাড়া রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয় (রাবি) ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (সিসিডিসি) এদিন সকালে বর্ণাঢ্য র‌্যালি করে। র‌্যালিটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে বিভিন্ন বিভাগের নারী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। ‘সীমন্তিনী’ পরিবার দুদিনব্যাপী কর্মসূচিরও আয়োজন করেছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ডিন্স কমপ্লেক্সের কনফারেন্স রুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধিকর্তা প্রফেসর মো. ইলিয়াছ হোসেন, মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর মাহবুবা কানিজ কেয়া এবং সীমন্তিনীর এডমিন ও মডারেটর ড. ফরিদা পারভীন কেয়া বক্তব্য রাখেন। বিকেলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মহিলা ক্লাবের উদ্যোগে সঙ্গীত পরিবেশন ও নাট্যকলা বিভাগের পরিবেশনায় ‘আমি বীরঙ্গণা বলছি’ শীর্ষক বাচিক অভিনয় পরিবেশিত হয়।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের রাবি শাখাও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিবসটি পালন করে। রাজশাহী কলেজে অনুষ্ঠিত হয়েছে বর্নাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা। এতে অংশ নেন কলেজ অধ্যক্ষ আবদুল খালেক। রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজেও শোভযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. জুবাইদা আয়েশা সিদ্দীকা। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. নাজনীন সুলতানা এবং শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা।