ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ৭:০৪ অপরাহ্ন

শেষ মুহূর্তের গোলে জয় রোনালদোর পর্তুগালের

  • আপডেট: Wednesday, June 19, 2024 - 10:24 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইউরো অন্যতম ফ্রেবারিট পর্তুগাল। পর্তুগাল ফ্রেবারিট হিসাবে মাঠে নেচেছিলো চেক প্রজাতন্ত্রের সাথে। কিন্তু প্রথমে গোল খেয়ে চাপে পরে যায় পর্তুগাল। শেষ মূর্হূতে গোল করে ৩পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল। গতকাল মঙ্গলবার (১৮ জুন) দিনগত রাতে লাইপজিগে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ২-১ গোলে জিতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে শিরোপা পুনরুদ্ধারের অভিযান শুরু করল পর্তুগাল।

মাঠে নেমে দারুণ এক কীর্তি গড়েছেন পেপে। চেক প্রজাতন্ত্রের বিপক্ষে খেলতে নামা পেপের বয়স ৪১ বছর ১১৩ দিন। ভেঙেছেন হাঙ্গেরির গ্যাবর কিরাইয়ের ৪০ বছর ৮৬ দিন বয়সে খেলার রেকর্ডটি।

ম্যাচের শুরুতে আধিপত্য দেখানো শুরু করে পর্তুগাল। অষ্টম মিনিটে রাফায়েল লেয়াওয়ের ক্রসে ঠিকঠাক হেড করতে পারেননি দলটির অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।আবার  ম্যাচের ২৪তম মিনিটে ব্রুনো ফার্নান্দেজের অনেক দূর থেকে নেওয়া শট একজনের পায়ে লেগে ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়। পরবর্তীতে ৩২তম মিনিটে ফার্নান্দেজ বক্সে দুর্দান্ত এক থ্রু পাস বাড়ান, গোলরক্ষককে একা পেয়ে যান রোনালদো। তবে, রোনালদোর শট দারুণ ক্ষিপ্রতায় রুখে দেন গোলরক্ষক স্তানেক। বাকি সময়ে তেমন আক্রমণ না হওয়ায় গোলশূণ্য অবস্থায় বিরতীতে যায় দুইদল।

দ্বিতীয়ার্ধে শুরুর দিকে পর্তুগালের আক্রমণের ধার কমে নি কিন্তু তারা গোলের দেখা পাচ্ছিলো না। ৬২তম মিনিটে লুকাস প্রোভডের দারুণ এক শটে পর্তুগালের জালে বল ঢুকিয়ে দেয় চেক প্রজাতন্ত্র । এগিয়ে যায় ১-০ গোলে।

৬৯তম মিনিটে নুনো মেন্ডেসের হেড ঝাপিয়ে পড়ে ঠেকান চেক গোলরক্ষক স্তানেক। তবে বলটা নিজের নিয়ন্ত্রনে নিতে পারেননি তিনি। সামনে থাকা চেক ডিফেন্ডার রবিন হ্রানাচের গায়ে লেগে ডুকে যায় নিজেদের জালে। তাদের এই ভুলেই সমতায় ফেরে পর্তুগাল। তারপড় দুই দলে একের পর এক সুযোগ মিস করে।মনে হচ্ছিলো ম্যাচটি ড্র হয়ে। পয়েন্ট ভাগাভাগি করা লাগবে দুই দলকে। কিন্তু ৯০ মিনিটের শেষ দিকে দিয়েগো জোতার চেকের জালে বল পাঠালেও রোনালদো অফসাইডে থাকায় বাতিল হয়ে যায় সেই গোল।

নাটক এখানে শেষ হয়নি ৯০তম মিনিটে ভিতিনিয়াকে তুলে কনসেইকাওকে নামান কোচ রবার্তো মার্টিনেজ । আর মাঠে নামার মাত্র ১১০ সেকেন্ডের মধ্যে গোল করেন বসেন এই ২১ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। কাক্ষিত জয় আনে দেয় পর্তুগালকে।

 

সোনালী/ সা