ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ৫:৪৯ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে অপপ্রচারের দায়ে ১৩ বছরের সাজা বাসবিদ নেতার

  • আপডেট: Wednesday, June 12, 2024 - 7:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারি কর্মকর্তাদের নামে অপপ্রচার ও মানহানিকর তথ্যের দায়ে কথিত ‘বাংলাদেশ সন্ত্রাসবিরোধী দল’ (বাসবিদ) চাঁপাইনবাবগঞ্জ শাখার স্থানীয় এক সংগঠকের ১৩ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির নাম হারুন অর রশীদ (৬৮)। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার রানীহাটি গ্রামের বাসিন্দা।

মামলায় আরও তিনজন আসামি ছিল। তবে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালতের বিচারক তাদের বেকসুর খালাস দিয়েছেন।

রায় ঘোষণার সময় অন্য তিন আসামি হাজির ছিলেন। তবে দণ্ডিত হারুন অর রশিদ গ্রেপ্তারের পর জামিন নিয়েই গা ঢাকা দেন। তিনি এখনও পলাতক।

রায় ঘোষণার পর রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা বেগম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ২০২২ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরে হঠাৎ করেই টানিয়ে রাখা একটি ব্যানার পুলিশের নজরে আসে। ওই ব্যানারে লেখা ছিল বাংলাদেশ সন্ত্রাসবিরোধী দল (বাসবিদ)।

আরও লেখা ছিল, দলটিতে যোগ দিলে কোনো ধরনের কর দেয়া লাগবে না। পাশাপাশি ব্যানারটিতে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও সরকারি কর্মকর্তাদের নামে মানহানিকর কথা লেখা ছিল।

পুলিশ এসব ব্যানার একটি ফেসবুক পেজে গিয়েও দেখতে পায়। পরে জানতে পারে চাঁপাইনবাবগঞ্জে কথিত এ সংগঠনের সংগঠক হিসেবে হারুন অর রশিদসহ কয়েকজন অপপ্রচার করছেন। এরপর তদন্ত করে তাদের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে পুলিশ।

অ্যাডভোকেট ইসমত আরও বলেন, এ মামলায় অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় হারুন অর রশিদকে তিনটি ধারায় ১৩ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন বিচারক। তিন ধারায় তাকে এক লাখ করে মোট তিন লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। জরিমানার প্রতি এক লাখ টাকা অনাদায়ে আরও তিন মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তিন আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।