ঢাকা | জুন ১৬, ২০২৪ - ৫:৫৪ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে ঝড়ে উপড়ে যাওয়া গাছের চাপায় ২ জনের মৃত্যু, আহত ৫

  • আপডেট: Wednesday, June 5, 2024 - 10:45 am

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় ঝড়ে উপড়ে যাওয়া একটি পাকুড়গাছের নিচে চাপা পড়ে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন। আজ মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে উপজেলার চকবাউশা গ্রামের রাজার মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। গাছের নিচে আরও কেউ চাপা পড়ে আছে কি না, তা নিশ্চিত হতে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন জালাল উদ্দিন (৪৫) ও জাকিরুল ইসলাম (৩০)। তাঁদের বাড়ি বাঘা উপজেলার চক বাউশা গ্রামে। আহত হয়েছেন একই গ্রামের মো. সেন্টু (৩৮), মুকুল (৩৫), রুবেল (৪০), শাহারুল (৪০) ও আজগর আলী (২০)। এদের মধ্যে সেন্টুর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

ঘটনাস্থলে স্থানীয় মানুষের ভিড়। আজ মঙ্গলবার রাতে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার চকবাউশা গ্রামের রাজার মোড়েছবি: প্রথম আলো

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী চকবাউশা গ্রামের কৃষক এছারুল্লাহ জানান, রাজার মোড়ে পাকুড়গাছের নিচে জালাল উদ্দিনের সার ও কীটনাশকের দোকান রয়েছে। পাশেই একটি ঝালমুড়ির দোকান রয়েছে। ঝড়ের সময় পাকুড় গাছটি রাস্তার ওপর ভেঙে পড়ে। এতে সার ও ঝালমুড়ির দোকানও চাপা পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই পাওয়ার টিলারের চালক জাকিরুল। জালাল উদ্দিনকে গুরুতর আহত অবস্থায় বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। রাত ৯টার দিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় মুকুল ও রুবেলকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের জ্যেষ্ঠ স্টেশন অফিসার আবু সামা বাঘা উপজেলা ফায়ার স্টেশনের বরাত দিয়ে রাত ১০টা ৪০ মিনিটে প্রথম আলোকে বলেন, আরও কেউ গাছের নিচে চাপা পড়ে থাকতে পারে। এ জন্য উদ্ধারকাজ চলছে।

বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম রাত পৌনে ১১টায় প্রথম আলোকে বলেন, তাঁরা ঘটনাস্থলে একজনকে মৃত অবস্থায় পেয়েছেন। জালাল উদ্দিনকে গুরুতর আহত অবস্থায় বাঘা উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়েছেন। এখনো উদ্ধারকাজ চলছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাবিলা মেহুনাজ জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে আসা জালাল উদ্দিন মারা গেছেন।

 

সোনালী/ সা