ঢাকা | জুন ২১, ২০২৪ - ১০:২২ অপরাহ্ন

চারঘাটে নির্বাচনি সংঘর্ষে বৃদ্ধাকে পিটিয়ে জখম

  • আপডেট: Wednesday, June 5, 2024 - 10:29 pm

স্টাফ রিপোর্টার: জেলার চারঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন সাধিনা বেগম নামে এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার বেলঘরিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আহত বৃদ্ধার ছেলে লিটন ও মিঠু মৌখিকভাবে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় চারঘাটের বেলঘরিয়া এলাকার ভোটকেন্দ্রে ভোট দিয়ে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন বৃদ্ধা সাধিনা বেগম। এসময় ভোট কেন্দ্রের বাইরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ চলছিল।

তখন সাধিনা বেগম দেখতে পান, তার এক প্রতিবেশীকে কয়েকজন মিলে মারধর করছেন। এসময় সাধিনা বেগম তার প্রতিবেশীকে তাদের হাত থেকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে উল্টো তাকেই বেধড়ক পিটিয়ে জখম করে স্থানীয় বখাটে যুবক ফরহাদ। এসময় তার অন্যান্য সন্ত্রাসী সহযোগীরাও তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন।

বৃদ্ধা সাধিনা বেগমের নাতি হাফিজুর রহমান জানান, ঘটনার পর আমরা খবর পেয়ে কেন্দ্রের সামনে গিয়ে দেখি নানি অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন। তার মাথা দিয়ে অনবরত রক্ত ঝরছে। তখন সময় নষ্ট না করে আমরা দ্রুত নানিকে হাসপাতালে নিয়ে যাই।

তিনি জানান, বেলঘরিয়া এলাকার স্থানীয় বখাটে যুবক ফরহাদ আমার নানীকে এমন অমানবিকভাবে পিটিয়ে জখম করেছে। আমার নানি অত্যন্ত সহজ সরল প্রকৃতির মানুষ। তিনি প্রতিবেশী আনন্দকে মার খেতে দেখে কিছু চিন্তা না করেই তাকে বাঁচাতে এগিয়ে যান। কিন্তু ফরহাদ ও তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী আমার বৃদ্ধা নানীকেও মারতে ছাড়েনি।

এমন অমানবিক ঘটনায় আহত বৃদ্ধা সাধিনা বেগমের পরিবার অভিযুক্ত সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

সোনালী/জেআর