ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন

লেভারকুসেনের ৫২তম ম্যাচে কষ্ঠের হার

  • আপডেট: Friday, May 24, 2024 - 12:17 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: বুন্দেসলিগায় বায়ার্ন মিউনিখের ১১ বছরের রাজত্বের অবসান ঘটিয়ে নিজেদের ইতিহাসে প্রথম শিরোপা ঘরে তুলেছে বেয়ার লেভারকুসেন। অপরাজিত বুন্দেসলিগা শেষ করা দলটি ইউরোপের সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ৫১ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রের্কেড গড়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে মৌসুমের প্রথম পরাজয়ের মুখ দেখছে ইউরোপা লীগে ফাইনালে জাভি আলোনসোর দল। হার নিয়ে জাভি বলেছেন, আমরা একটি বাজে রাত কাটিয়েছি।

জাবি ম্যাচের শুরুতেই খানিক বাজি ধরেছিলেন। দুই সেরা তারকা প্যাট্রিক শিক ও ভিক্টর বোনিফেসকে রাখেননি শুরুর একাদশে। আকস্মিক বদল দিয়ে প্রতিপক্ষকে ভড়কে দেয়াই লক্ষ্য ছিল কোচ জাবির। পুরো মৌসুমে বল পায়ে প্রেসিং করে গিয়েছে বায়ার লেভারকুসেন। ব্যতিক্রমী এই কৌশলের বিপরীতে গাস্পারেনি বেছে নিলেন গ্রেগেনপ্রেসিং ঘরানার ফুটবল। কিছুটা শারীরিক ফুটবল উপহার দিলেও লেভারকুসেনের স্বাভাবিক খেলাটা নষ্ট করেছে পুরোদমে।

আদেমোলা লুকম্যান আর জিয়ান পিয়েরে গাস্পারেনির পরিকল্পনা ছিল অন্যরকম। নাইজেরিয়ান এই উইঙ্গার করলেন হ্যাটট্রিক। আর গাস্পারেনি ফুটবল দুনিয়াকে দেখালেন কোচ জাবি আলোনসোর বিপক্ষে কীভাবে খেলতে হয়। ৬৬ বছরের এই অভিজ্ঞ কোচের কাছে শেষ পর্যন্ত হার মানতে বাধ্য হলেন জাবি আলোনসো। ৩-০ গোলের জয়ে ৬১ বছরের শিরোপাখরা ঘুচালো আতালান্তা। ক্লাবের ইতিহাসে এটিই প্রথম ইউরোপিয়ান শিরোপা।

জার্মান ক্লাবটির হারের পথের শুরু হয় ১২ মিনিটে, আটলান্টার রাইট উইংয়ের আক্রমণে বাড়িয়ে দেয়া বলে বাঁ-পায়ে জোরাল শটে গোল করেন লোকমান। ১-০তে এগিয়ে যায় জিয়ান পিয়েরো গ্যাস্পেরিনির দল। ২৬ মিনিটে নাইজেরিয়ান বংশোদ্ভূত লোকমান ডি বক্সের বাইরে থেকে দৃষ্টিনন্দন শটে আটলান্টার ব্যবধান দিগুণ করেন। প্রথমার্ধে ওই ব্যবধান রেখে বিরতিতে যায় ইতালিয়ান ক্লাবটি।

এরপরেও জাবির দলের ওপর ভরসা ছিল ভক্তদের। চলতি মৌসুমে কম কামব্যাক তো করেনি দলটি। দুই গোলে পিছিয়ে থেকেও ফিরে এসেছে চারবার। ইউরোপা লিগের সেমিতেও ছিল এমন কিছু। বিরতির পর জোসেফ স্টানিসিকের বদলে বোনিফেসকে মাঠে নামান আলোনসো। এবার খেলায় কিছুটা গতি এলেও আতালান্তার কৌশল আবারও ফাটল ধরায় লেভারকুসেনের পরিকল্পনায়।

বিরতি থেকে ফিরে দুই গোলে এগিয়ে থাকার সুযোগ নিয়ে জাভি আলোনসোর শিষ্যদের উপর আবার চড়াও হয় আটলান্টা। ৭৫ মিনিটে দারুণ সুযোগ তৈরি করেন লোকমান। প্রথম দুই গোলের সৌন্দর্য ছাড়িয়ে বাঁ-পায়ে টপকর্নারে দূরপাল্লার শটে তৃতীয় গোল এনে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন। ট্রেবল জেতার সুযোগ হারালেও এখনো ডাবল জয়ের সুযোগ এখনো আছে লেভারকুসেনের। আগামী রোববার জার্মান কাপের শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে কাইজারস্লাটার্নের বিপক্ষে মাঠে নামবে তারা।

ট্যাকটিকাল কোচ জাবি গতরাতে পেরে ওঠেননি রণকৌশলে। তাই স্বীকার করে নিয়েছেন দায়, ‘মানসিকতার কারণে এই পরাজয় নয়, ব্যাপারটি ফুটবলীয়। এরকম হয়েই থাকে, এটা ফুটবল। আজকের দিনটি আমাদের ছিল না। ওরা আমাদের চেয়ে ভালো ছিল আজকে। বড় একটি সুযোগ ছিল আমাদের জন্য। কিন্তু সবকিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী এগোয়নি। আমরা নিজেদের সেরা পর্যায়ে ছিলাম না।’ সামনেও যে তাকাতে হবে।

শনিবার লেভারকুসেন নামবে জার্মান কাপের ফাইনাল খেলতে। জাবি বলেছেন, ‘আমরা শিখব। আমরা এখান থেকে শিখব, কারণ ফাইনালে এরকম হার, এসব ম্যাচকে ভোলা যায় না। আমাদের জন্য এটা একটা পরীক্ষা যে, আমরা কীভাবে এই পরিস্থিতি সামলাব, শনিবার আরেকটি বড় ফাইনাল আমাদের অপেক্ষায়। আজকের হার থেকে ঘুরে দাঁড়ানো এবং এই পরাজয়ের বেদনা কাটিয়ে ওঠা আমাদের জন্য হবে চ্যালেঞ্জিং। চেষ্টা করে দেখা যাক, শনিবারের ফাইনালের জন্য আমাদের মানসিকতায় বড় প্রভাব পড়ে কিনা।’

 

সোনালী/ সা