ঢাকা | জুন ১৯, ২০২৪ - ৯:৪৪ পূর্বাহ্ন

মুক্তিপণের জন্য কলেজছাত্রকে অপহরণ, গ্রেফতার ৩

  • আপডেট: Thursday, May 23, 2024 - 11:40 am

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার শাহমখদুম কলেজের সামনে থেকে এক কলেজছাত্রকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবির ঘটনায় ৩ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে মতিহার থানা পুলিশ। এ সময় অপহরণ কাজে ব্যবহৃত একটি অটোরিকশা জব্দ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, জয়পুরহাট জেলার কালাই থানার পুনট পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহ আল নোমান ওরফে তামিম পদ্মা আবাসিক এলাকার বঙ্গবন্ধু কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র। গত ২১ মে বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে তামিম তার বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে তালাইমারী থেকে অটোরিকশায় সাহেববাজার যাচ্ছিলেন।

এ সময় তালাইমারী মোড় থেকে তামিমদের পিছু নেয় জহুরুলসহ আরও তিনজন। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শাহমখদুম কলেজের সামনে পৌঁছলে তামিমকে জোর করে রিকশা থেকে নামিয়ে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। পরে অপহরণকারীরা তামিমের বাবার মোবাইল ফোনে ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

এদিকে তামিমকে অপহরণের বিষয়টি পুলিশের ৯৯৯ নম্বরে জানানো হয়। অভিযোগ পেয়ে মতিহার থানার ওসি মোবারক হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ভিকটিম উদ্ধারে নামেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে পুলিশ রুয়েট ফ্লাইওভারের কাছ থেকে জহুরুল রেন্টু ও ইসমাইলকে আটক করেন। পরে তাদের দেওয়া তথ্যমতে, এলাকার একটি বাড়ি থেকে তামিমকে উদ্ধার করা হয়। আরও পরে অপহরণ চক্রের অন্যতম সদস্য রাসেলকে ভদ্রা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বুধবার সকালে গ্রেফতার করা হয় রিকশাচালক ইসমাইলকে। অপহরণকারীদের বিরুদ্ধে আরএমপির মতিহার থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। বুধবার আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

মতিহার থানা পুলিশ জানায়, অপহরণ চক্রের হোতা জহুরুল ইসলাম রেন্টুর বিরুদ্ধে আরএমপির বিভিন্ন থানায় ৮ থেকে ১০টি অপহরণ মামলা রয়েছে। অন্য অপহরণকারীদের বিরুদ্ধেও চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে।

 

সোনালী/ সা