ঢাকা | জুন ১৫, ২০২৪ - ১০:৫৮ অপরাহ্ন

জামিল দিবস সফল করতে ছাত্র ও যুবমৈত্রীর যৌথ সভা

  • আপডেট: Thursday, May 23, 2024 - 10:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: শহিদ জামিল আক্তার রতনের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী আগামী ৩১ মে। ১৯৮৮ সালের এই দিনে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রমৈত্রীর তৎকালীন মেধাবী ছাত্রনেতা জামিল আক্তার রতনকে প্রায় ৩৫ জন শিক্ষকের সামনে হুইসেল বাজিয়ে হামলা চালিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক শক্তি ইসলামী ছাত্রশিবিরের সন্ত্রাসীরা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ শাখার ছাত্রমৈত্রীর আহ্বায়ক জামিল আক্তার রতনকে প্রকাশ্যে রগ কেটে হত্যার পর শিবির সেখানকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় একক নিয়ন্ত্রণ নেয়। শুরু হয় বর্বরোচিত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানোর জন্য সর্বস্তরে নিন্দিত এই ছাত্র সংগঠনটির রগ কাটার নৃশংস রাজনীতি।

এদিকে, আগামী ৩১মে শহিদ জামিল আক্তার রতনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা।

ওই কর্মসূচি সফল করতে যৌথ সভা করেছে রাজশাহী মহানগর ছাত্রমৈত্রী ও যুবমৈত্রী। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের কোর্ট স্টেশন এলাকায় শহিদ জামিল স্মৃতি সংসদে এই সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর যুবমৈত্রীর সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাবেক ছাত্রনেতা মতিউর রহমান মতি।

বক্তব্য রাখেন মহানগর যুবমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক শামীম ইমতিয়াজ সুমন, সহ-সভাপতি রায়হান হালিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মহায়মিনুল রানা, যুবনেতা আরিফ, খোরশেদ, কাউসার, কল্লোল, ছাত্রমৈত্রীর নেতা জানে আলম আরিয়ান, সিয়াম হোসেন, আমির হামজা প্রমুখ।

সভায় দুই সংগঠনের বর্তমান সাংগঠনিক পরিস্থিতি ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। সেইসাথে আগামী ৩১মে শহিদ জামিল আক্তার রতনের মৃত্যুবার্ষিকী সফল করতে করণীয় বিষয়াদির ওপর আলোকপাত করে নানা আলোচনা করেন ছাত্র ও যুব নেতারা।

যৌথ সভা পরিচালনা করেন রাজশাহী মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি ওহিদুর রহমান ওহি।

সোনালী/জেআর