ঢাকা | জুন ১৯, ২০২৪ - ৯:৩৪ পূর্বাহ্ন

নির্বাচনি সহিংসতায় আহত ২৭

  • আপডেট: Saturday, May 18, 2024 - 10:41 am

অনলাইন ডেস্ক: উপজেলা নির্বাচনি সহিংসতায়  তিন স্থানে ২৭ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে মিছিলে প্রতিপক্ষের হামলায় ২১ জন, পটুয়াখালীর দুমকিতে কাপ-পিরিচ মার্কার প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর আনারস মার্কার সমর্থকদের হামলায় ৫ জন আহত হয়েছেন।

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) : উপজেলার গাওদিয়া ইউনিয়নের বনসেমন্ত এলাকায় চেয়ারম্যানপ্রার্থী বিএম শোয়েবের সমর্থকদের মিছিলে হামলা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে গাওদিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান হাওলাদারের নেতৃত্বে এ হামলা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম শিকদারের নেতৃত্বে শোয়েবের দোয়াত-কলম প্রতীকের সমর্থকদের মিছিল বের হয়। এ সময় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আব্দুর রশিদ শিকদারের কাপ-পিরিচের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মিজানুরের নেতৃত্বে স্বপন হাওলাদার, সুমন হাওলাদার, রাজিব হাওলাদার, উজ্জ্বল বেপারী, জোনায়েদ হাওলাদার, সেলিম মেম্বারসহ ২৫-৩০ জন হামলা চালায়। এ সময় রিভলবার উঁচিয়েও ভয় দেখানো হয়।

তবে চেয়ারম্যান মিজানুর হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন তিনি ঘটনাস্থলে ছিলেন না।

দুমকি (পটুয়াখালী) : দুমকিতে কাপ-পিরিচ মার্কার প্রার্থী কাওসার আমিন হাওলাদারসহ তার সমর্থকদের ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের কাবিল হাওলা এলাকায় দুপুরে এ হামলা হয়।

সূত্র জানায়, বাদ জুমা প্রার্থী কাওসার স্থানীয় মসজিদের মুসল্লিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে ফেরার পথে আনারস প্রতীকের সমর্থকরা তার গাড়ির ওপর আঘাত করে। আঘাতের কারণ জিজ্ঞেস করলে তারা অতর্কিত হামলা চালায়। এতে কাওসারের ৫ সমর্থক আহত হন।

এদিকে আনারস প্রতীকের প্রার্থী মেহেদী হাসান মিজান হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, এ ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি তারেক মোহাম্মদ আবদুল হান্নান বলেন, বিষয়টি অবগত আছি। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) : বালিয়াকান্দিতে চেয়ারম্যানপ্রার্থী আবুল কালাম আজাদের কর্মী আলী আজমকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। আজম দক্ষিণবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা ও জাতীয় পার্টির উপজেলা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক। বৃহস্পতিবার রাতে এ হামলা হয়।

হাসপাতালে ভর্তি আজম অভিযোগ করে বলেন, রাত সাড়ে ১০টার দিকে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালামের গণসংযোগ শেষে আমি ও আরেক কর্মী রমজান আলী মোটরসাইকেলে বাড়ি ফিরছিলাম। এ সময় নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণবাড়ি পদমদী গ্রামে পৌঁছালে তিনজনের একটি মোটরসাইকেল পেছন থেকে এসে আমাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে এবং অতর্কিত হামলায় চালায়।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, এ বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

সোনালী/ সা