ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ১২:১৭ পূর্বাহ্ন

বাগমারায় দুবৃর্ত্তদের হিংসার শিকার অর্ধশতাধিক আম গাছ

  • আপডেট: Friday, May 17, 2024 - 6:28 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাগমারায় দুবৃর্ত্তদের হিংসার শিকার অর্ধশতাধিক আম গাছ। কোন কারণ ছাড়াই পুকুরের ধারের গাছ গুলো কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। গাছ গুলো কাটার কারনে প্রায় লক্ষ্যাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত বলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার দাবি করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে (১৭ মে) উপজেলার কাচারী কোয়ালীপাড়া খুঁজিপুর-মধুপুর গ্রামে। শুক্রবার সকালে এমন অমানবিক কান্ড দেখে হতভাগ হয়েছেন এলাকাবাসী।

জানা গেছে, উপজেলা ভবানীগঞ্জ মহল্লার মাজেদুর রহমান ও মধুপুর গ্রামের ফজেল আলী পারিবারিক ভাবে গ্রামের নীচে পার্শবর্তি কাদার বিলে ১০ বিঘা জমিতে একটি পুকুর খনন করেছেন।

কিছু দিন আগে পুকুরটি স্থানীয় মুনতাজ আলীকে মাছচাষের জন্য লিজ দেওয়া হয়। এর দুই বছর আগে পুকুরের চারিধারে ফাঁকা জায়গায় মালিক দ্বয় শতাধিক আমরুপালী গাছ রোপণ করেন। অনেক যত্ন, রক্ষনাবেক্ষন ও পরিচর্যার পর চারা গাছগুলো সবে মাত্র বেড়ে আম ধরা শুরু হয়েছে।

শুক্রবার রাতে কে বা কারা পুকুর পাড়ের পশ্চিম ধারের ও উত্তর ধারের মাঝে মধ্যের প্রায় অর্ধশতাধিক গাছ কেটে ফেলে। মাজদুর রহমান জানান, পুকুর পাড়ের গাছ গুলো বড় আশা করে রোপণ করা হয়। ওইসব চারা গাছ বেশ সতেজ হয়ে আম ধরা শুরু করেছে। কয়েক দিন থেকে পুকুর পাড়ে যাওয়া হয়নি। শুক্রবার সকালে তাদের পুকুরের শেয়ার মালিক ফজেল জানতে পারেন।

জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাতের অন্ধকারে কে বা কারা তাদের রোপণকৃত আম গাছ কেটে ফেলেছে। মাজেদুর রহমান জানান, বড় আশাতেই পুকুরের চারি ধারে ফলনজাত আম গাছ রোপণ করা হয়েছিল।

এখন শুধুই হতাশা আর গুঁড়ে বালিতে পরিনত হয়েছে। প্রায় লক্ষ্যাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে তিনি দাবি করেছেন। স্থানীয় গ্রামবাসী এরশাদ আলী, মুনসুর রহমানসহ অনেকে জানান, কোন পাসান্ড ব্যাক্তি এ ভাবে আমসহ গাছ গুলো কেটে ফেলেছে। সকালে গাছ গুলো কাটা গাছ দেখে হতবাক হয়ে পড়েছেন এলাকার লোকজন।

 

সোনালী/ সা