ঢাকা | মে ২২, ২০২৪ - ১১:১১ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু মৃত্যুর

  • আপডেট: Wednesday, May 15, 2024 - 11:23 am

স্টাফ রিপোর্টার: চিকিৎসকের অবহেলায় রাজশাহীর একটি বেসরকারি রয়্যাল হাসপাতালে ৫ বছর চার মাস বয়সি এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার বিকালে জিনিয়া জাবিন নামে ওই শিশুটি মারা যায়। এরপর ওই হাসপাতালে উত্তেজনা দেখা দেয়।

মারা যাওয়া শিশুটির বাবার নাম হীরা মণ্ডল। বাড়ি নওগাঁ সদরের পারনওগাঁ গ্রামে। গত শুক্রবার পেটের ব্যথা নিয়ে জিনিয়াকে রাজশাহীর রয়্যাল হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ইকবাল বারীর তত্ত্বাবধানে ভর্তি করা হয়েছিল। জানা গেছে, ডা. বারী রাজশাহী রয়্যাল হাসপাতালের একজন মালিকও।

শিশুটির বাবা হীরা মণ্ডল অভিযোগে বলেন, পেটের ব্যথার কারণে আমার মেয়েকে রয়্যাল হাসপাতালে ভর্তি করার পর থেকে চিকিৎসক ইকবাল বারী চিকিৎসা দিচ্ছিলেন। শনিবার থেকে মেয়ের অবস্থা আরও খারাপ হয়। আমি মেয়েকে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করাতে চাইলেও চিকিৎসক তা করতে দেননি। চিকিৎসাসহ নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে ২০ হাজার টাকা বিল দিয়েছি। তাও আমার মেয়েকে বাঁচানো গেল না। শুধু চিকিৎসকের অবহেলার কারণেই আমার মেয়ে মারা গেছে। আমি এর বিচার চাই।

হীরা মণ্ডল আরও জানান, শনিবার সন্ধ্যার আগে রয়্যাল হাসপাতালের লোকজন জানায়, শিশু জিনিয়া জাবিন মারা গেছে। অথচ এ হাসপাতালেই জিনিয়া সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারবে বলে বারবার আশ্বাস দিয়েছিলেন চিকিৎসকসহ কর্মচারীরা।

মেয়েটি মারা যাওয়ার পর তারা জানায়, শিশুটির অবস্থা ভালো ছিল না। তার আরও উন্নত চিকিৎসার দরকার ছিল। শিশু জিনিয়ার কি সমস্যা হয়েছিল সেটিও চিকিৎসক বলেননি আমাদের কাছে।

চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ডা. ইকবাল বারী বলেন, অভিযোগ সত্য না। হঠাৎ করে শিশুটির ডায়াবেটিস কমে গিয়েছিল, কিডনির কার্যক্ষমতা কমে যায় শেষদিকে। সে কারণে মারা গেছে।

তিনি বলেন, নিয়ম হলো যখন যে রিপোর্ট হবে তা ডাক্তারকে দেখিয়ে দ্রুত চিকিৎসা করাতে হবে। কিন্তু শিশুর অভিভাবকরা চিকিৎসা না করিয়ে টাকা বাঁচানোর জন্য আমার চেম্বারে এসেছে। অবহেলায় মারা গেছে এ অভিযোগ ঠিক না। তবে শিশুটি কোন সমস্যায় ভুগছিল এ বিষয়ে ডা. বারী কোনো জবাব দেননি।

 

সোনালী/ সা