ঢাকা | মে ২২, ২০২৪ - ১১:১৪ অপরাহ্ন

বাগমারায় পুুলিশের বিরুদ্ধে মামলা আমলে না নেয়ার অভিযোগ

  • আপডেট: Friday, May 10, 2024 - 9:10 pm

বাগমারা প্রতিনিধি: থানায় অভিযোগ দিয়ে পাঁচ মাস অতিবাহিত হলেও কোনো আসামি গ্রেপ্তার কিংবা মামলা আমলে নেয়নি পুলিশ। শুক্রবার বাগমারার মুগাইপাড়া বাজারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেছেন তাতিপাড়া গ্রামের আব্দুল গাফ্ফারের ছেলে বাদি রায়হান আলী।

সংবাদ সম্মেলনে রায়হান আলী লিখিত বক্তব্যে দাবি করেন, মোহনপুরের তাতিপাড়া গ্রামের একটি জলাশয় ১০ বছরের জন্য তিনি লিজ নিয়ে মাছ চাষ করে আসছেন। জাতীয় নির্বাচনে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেয়া নিয়ে বিরোধের জের ধরে জনৈক রেজাউল করিম ও সোহেল রানার নেতৃত্বে এলাকার কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি জোরপূর্বক জলাশয়টি দখলের চেষ্টা করছে। গত ৭ মে রেজাউল করিম ও সোহেল রানার নেতৃত্বে তাদের কয়েকজন ভাড়াটিয়া বাহিনী মৎস্য প্রজেক্টের পাহারাদার ও ম্যানেজারের ওপর হামলা চালায়।

হামলাকারিরা প্রজেক্টের ম্যানেজার শহীদকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। বর্তমানে সে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এছাড়া গত ১৩ জানুয়ারি রাতে ওই জলাশয়ে বিষ ঢেলে দিয়ে প্রায় ছয় লাখ টাকার মাছ নিধন করা হয়।

এই ঘটনায় পরের দিন ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়। কিন্তু পাঁচ মাস অতিবাহিত হলেও আজও কোনো আসামি গ্রেপ্তার কিংবা অভিযোগটি মামলা হিসেবে আমলে নেয়া হয়নি।

তবে এ বিষয়ে থানার ওসি হরিদাশ পাল বলেন, অভিযোগকারি বিষয়টি আপস মীমাংসা করে নেয়ার কথা বলে থানায় আর যোগাযোগ করেননি। এ কারণে অভিযোগটি মামলা হিসেবে আমলে নেয়া হয়নি।

সোনালী/জেআর