ঢাকা | মে ২৭, ২০২৪ - ৪:১৫ পূর্বাহ্ন

পবা ও মোহনপুরে ১২ চেয়ারম্যান প্রার্থী বৈধ ঘোষণা

  • আপডেট: Monday, May 6, 2024 - 12:42 pm

স্টাফ রিপোর্টার: ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে রাজশাহীর পবা ও মোহনপুর উপজেলায় ১২ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়েছে। আর যাচাই-বাছাইয়ে বাতিল হয়েছে একজনের মনোনয়নপত্র। এই দুই উপজেলার ১২ জন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ৯ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্রও বৈধ হয়েছে।

রোববার (৫ মে) দুপুরে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাই করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সরকার অসীম কুমার। এ সময় শুধু পবা উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুর রশিদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

পবার বৈধ চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইয়াসিন আলী, এএসএম মোস্তাফিজুর রহমান, মো. ওয়াজেদ আলী খাঁন, মো. ফারুক হোসেন ডাবলু, মো. সাইফুল বারী, ডেভিড রিচার্ড মুর্মু ও মো. এমদাদুল হক। এদের মধ্যে ডেভিড রিচার্ড মুর্মু কোন দল করেন না। তিনি এই উপজেলার স্বতন্ত্র প্রার্থী। অন্যরা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও কৃষক লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।

এদিকে যাচাই-বাছাই শেষে রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বৈধ চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, এনামুল হক, আল-মোমিন শাহ গাবরু, আলমগীর মূর্শেদ রঞ্জু, মেহেবুব হাসান রাসেল ও আফজাল হোসেন বকুল। তারাও সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। দুই উপজেলার কোন ভাইস চেয়ারম্যান কিংবা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।

আজ উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমার প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার জন্য আহ্বান জানান।

এ সময় পবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু সালেহ্ মোহাম্মদ হাসনাত, জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার সাকিব হাছান খাঁন, সহকারী কমিশনার, সানিয়া বিনতে আফজালসহ জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল করা যাবে আগামী সোমবার (৬ মে) থেকে ৮ মে পর্যন্ত। আর আপিল নিষ্পত্তির ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে ৯ থেকে ১১ মে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১২ মে। প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ১৩ মে। প্রচার-প্রচারণা শেষে ভোটগ্রহণ করা হবে ২৯ মে।

 

সোনালী/ সা