ঢাকা | মে ২১, ২০২৪ - ৬:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

রাজশাহীর ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ৪৩ ডিগ্রী

  • আপডেট: Tuesday, April 30, 2024 - 6:41 pm

স্টাফ রিপোর্টার: এপ্রিলের শুরু থেকেই রাজশাহী অঞ্চলে অব্যাহত আছে তীব্র তাপদাহ। এতে করে জনজীবনে নেমে এসেছে নাভিশ্বাস। প্রাণীকুলেও দেখা মিলেছে অস্বস্থি। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) ৫২ বছরের মধ্যে রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস। যা ৫২ বছরের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হলো।

রাজশাহীর ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ৪৩ ডিগ্রী। আজ এ অঞ্চলের মানুষ লু-হাওয়ার মুখোমুখি হয়েছে। স্মরণকালের মধ্যে এ বছর গ্রীষ্মের শুরু থেকেই পুড়তে শুরু করে পদ্মা পাড়ের রাজশাহী। আজকের দিনে আঞ্চলিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করে।

রাজশাহী আবহাওয়া  অফিসের জ্যেষ্ঠ পর্যক্ষেক গাওসুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, আগামীকাল বুধবার (১ মে) তাপমাত্রার পারদ এর চেয়ে বেশি উঠতে পারে। তা না হলে আজকের মতোই তাপপ্রবাহ (৪৩ ডি.সে) থাকতে পারে। রাজশাহীতে আপাতত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। ফলে তাপমাত্রা সামনে আরও কয়েকদিন এমন উত্তপ্ত থাকতে পারে।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম জানান, স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালের ১৮ মে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল রাজশাহীতেই। ওই দিন রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪৫ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা দেশের স্বাভাবিক তাপমাত্রার চেয়ে ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল। বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত তাপমাত্রার এ রেকর্ড ভাঙেনি। ২০০৫ সাল থেকে আবহাওয়ার পরিসংখ্যান সংরক্ষণ করছে রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার। এর আগে এ অঞ্চলে ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ওঠার রেকর্ড নেই।

২০০৫ সালের ২ জুন রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৪২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, ২০১০ সালের ১০ এপ্রিল রেকর্ড হয়েছিল ৪২ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া ২০১৪ সালের ২১ মে, ২০২৩ সালের ১৭ এপ্রিল এবং ২০২৪ সালের ২৯ এপ্রিল রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

স্থানীয়রা বলছে, মরূদ্যানের মতো তাপমাত্রা বয়ে যাচ্ছে পদ্মাপাড়ের রাজশাহীতে। সকাল থেকেই বইছে লু-হাওয়া। বৈশাখের দিনগুলো কাটছে দুঃসহ গরমে। তীব্র গরমে হাঁসফাঁস করছে মানুষ ও পশুপাখি।

 

সোনালী/ সা