ঢাকা | মে ৩০, ২০২৪ - ৯:৪৪ পূর্বাহ্ন

সার্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধনে রাজশাহী এগিয়ে

  • আপডেট: Thursday, April 18, 2024 - 9:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: সার্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কর্মসূচিতে বিভাগীয় পর্যায়ে রাজশাহী জেলা এগিয়ে রয়েছে। www.upension.gov.bd ওয়েবসাইটের পাওয়া সর্বশেষ তথ্য মতে বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত রাজশাহীতে ৬ হাজার ১২৩ জন নিবন্ধন করা হয়েছে।

এছাড়াও রাজশাহী বিভাগের আট জেলার মধ্যে বগুড়া জেলায় নিবন্ধন করেছে- ২ হাজার ৯৪ জন, পাবনায়- ১ হাজার ৫৫, সিরাজগঞ্জে- ৬৭৮, নাটোরে- ৬০৮, জয়পুরহাটে- ৬১৩, নওগাঁয়- ৪২৬ জন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে- ৩৪১ জন। এই তথ্যের আলোকে বিভাগীয় পর্যায়ে সার্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধন কর্মসূচিতে রাজশাহী জেলা এগিয়ে রয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের তথ্য অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত বছরের ১৭ আগস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে সার্বজনীন পেনশন স্কিম কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। সেদিন থেকেই ১৮ বছরের বেশি বয়সী বাংলাদেশি নাগরিকরা www.upension.gov.bd ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করছেন। চার শ্রেণির জনগোষ্ঠীর জন্য চার ধরনের পেনশন স্কিম রয়েছে। এগুলো হলো প্রগতি, সুরক্ষা, সমতা ও প্রবাসী। এর মধ্যে বেসরকারি খাতের চাকরিজীবীদের জন্য ‘প্রগতি’, স্বকর্মে নিয়োজিত ব্যক্তিদের জন্য ‘সুরক্ষা’, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ‘প্রবাসী’ ও নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠীর জন্য ‘সমতা’।

রাজশাহীর জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ জানান, ‘আমরা সার্বজনীন পেনশন স্কিম নিবন্ধনের ক্ষেত্রে ভালো সাড়া পাচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বয়স্ক জনগোষ্ঠীকে একটি টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তা কাঠামোর আওতায় আনয়নে সার্বজনীন পেনশন পদ্ধতির প্রবর্তন করেছেন। এ উদ্যোগ একটি যুগান্তকারী জনকল্যাণমুখী পদক্ষেপ, যা সকল নাগরিকের অবসরকালীন আর্থিক মুক্তির সনদ হিসেবে বিবেচিত হবে। এ ব্যবস্থা কার্যকর হলে আমাদের বয়স্ক জনসাধারণের সামাজিক নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হবে।’

সোনালী/জেআর