ঢাকা | মে ২৪, ২০২৪ - ৬:২৭ পূর্বাহ্ন

সাংবাদিকের পা ভেঙে দেওয়ার ঘটনায় মামলা

  • আপডেট: Wednesday, April 17, 2024 - 10:52 pm

অনলাইন ডেস্ক: নকল দুধ তৈরির সংবাদ প্রকাশের জেরে পাবনার ভাঙ্গুড়ায় মানিক হোসেন (৩৫) নামের এক স্থানীয় সাংবাদিককে পিটিয়ে তার পা ভেঙে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে ভাঙ্গুড়া উপজেলার পুঁইবিল গ্রামে মানিক হোসেনকে মারধরের ঘটনা ঘটে। গুরুতর অবস্থায় মানিককে প্রথমে ভাঙ্গুড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত মানিক হোসেন দৈনিক খোলা কাগজের ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধি এবং ভাঙ্গুড়া প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

এ ঘটনায় মামলার আসামিরা হলেন- উপজেলার চকলক্ষীকোল এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে মো. রাজিব (২৭), পুঁইবিল এলাকার মহসিন আলীর ছেলে মো. বায়োজিদ (২৫), মৃত হামিদ প্রামাণিকের ছেলে মো. মাহাতাব (২৭), কৈডাঙ্গা নতুনপাড়ার আবু তালেবের ছেলে আবুল বাশার (৪০), মৃত সোহরাব হোসেনের ছেলে মো. বাবুসহ (৩০) অজ্ঞাত আরও ২-৩ জন।

ভাঙ্গুড়া থানার ওসি নাজমুল হক বলেন, মামলা দায়ের হয়েছে কিন্তু এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে, আশা করি খুব শিগগিরই তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

অভিযোগে জানা গেছে, ভাঙ্গুড়া উপজেলায় কয়েকজন দীর্ঘদিন ধরে নকল দুধ তৈরি করে বাজারজাত করে আসছেন। এ নিয়ে সম্প্রতি মানিক হোসেনসহ কয়েকজন সাংবাদিক নকল দুধ তৈরির ছবি তোলেন ও ভিডিও ধারণ করেন। পরে তা পত্রিকায় প্রকাশসহ প্রতিকারের জন্য উপজেলা ও থানা প্রশাসনের নজরে আনেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দুগ্ধ ব্যবসায়ীদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী মঙ্গলবার সকালে পুঁইবিল সড়কে মানিককে একা পেয়ে পিটিয়ে পা ভেঙে দেয়।

আহত সাংবাদিক মানিক বলেন, সংবাদ প্রকাশের পর থেকেই নকল দুধ তৈরির ব্যবসায়ীরা বাড়িতে এসে কয়েক দিন ধরে হুমকি দিচ্ছিলেন। আমাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে এবং সেই পেটানোর ভিডিও করেছে তারা। আমার মোটরসাইকেল ও মোবাইল কেড়ে নিয়েছে। আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন।

 

সোনালী/ সা