ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ১২:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম

রাজশাহীতে ঈদের জামাতে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির ডাক

  • আপডেট: Friday, April 12, 2024 - 12:22 am

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে হযরত শাহ মখদুম (রহঃ) কেন্দ্রীয় ঈদগাহে পবিত্র ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। জামাত শেষে দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি, অগ্রগতি ও কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

এছাড়াও দেশ ও জাতির স্বার্থে সবার মধ্যে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতি রক্ষার ডাক দেয়া হয়। প্রধান ঈদ জামাতে ইমামতি করেছেন শহরের দারুল উশাহা মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি ওমর ফারুক।

এদিকে, নগরীর জজ কোর্ট মাঠেও ঈদ জামাতের আয়োজন করা হয়। সেখানে ঈদের নামাজ আদায় করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। এসময় তিনি উপস্থিত মুসল্লিদের সঙ্গে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং সবাইকে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।

অপরদিকে, হযরত শাহ মখদুম (রহঃ) কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় নগরীর আহমদপুর বায়তুল মামুর জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল। এসময় নামাজ শেষে তিনি উপস্থিত মুসল্লিদের সাথে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

এদিকে, সকাল ৮টায় সাহেব বাজার বড় মসজিদের সামনের প্রধান সড়কে ঈদুল ফিতরের তৃতীয় বিশাল জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ঈদের নামাজ আদায় করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। এসময় তিনি ঈদের নামাজ শেষে মুসল্লিদের সঙ্গে কোলাকুলি করেন। এবং ঈদের শুভেচ্ছা ও কুশল বিনিময় করেন।

এছাড়াও হযরত শাহ মখদুম (রহঃ) কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর, জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাসহ মুসল্লিরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) ঈদের প্রথম জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ৭টায় টিকাপাড়ায় থাকা মহানগর ঈদগাহে ঈদের দ্বিতীয় প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।

জানা যায়, রাজশাহী শহরের বিভিন্ন এলাকায় এবার প্রায় ৫০টি এবং ৯ উপজেলায় আরও প্রায় ৩৫০টি ঈদগাহে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ৮টার মধ্যেই এসব এলাকায় ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. জামিরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, ঈদুল ফিতরের নামাজকে ঘিরে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছিল। সেই সঙ্গে ঈদগাহ ও মসজিদগুলোর আশপাশের এলাকায় সকাল থেকেই পুলিশি টহল বাড়ানো হয়। কোথাও থেকে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস