ঢাকা | এপ্রিল ১৯, ২০২৪ - ৮:১০ পূর্বাহ্ন

রমজানে ট্যাটু অপসারণ করছে ইন্দোনেশিয়ার মুসলিমরা

  • আপডেট: Thursday, April 4, 2024 - 1:53 pm

অনলাইন ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তায় পবিত্র রমজান মাসে মুসলমানদের জন্য বিনা মূল্যে ট্যাটু অপসারণের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। ইসলামি দাতব্য সংস্থা আমিল জাকাত ন্যাশনাল এজেন্সি এই কর্মসূচির আয়োজন করেছে। এর মাধ্যমে ধর্মীয় বিধান মেনে চলা মুসলিমদের পবিত্র রমজান মাসে ‘অনুশোচনার’ সুযোগ দেওয়া হচ্ছে বলে সংস্থাটি জানিয়েছে। ইতোমধ্যে শত শত ইন্দোনেশিয় মুসলিম এ কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছেন।

২০২১ সালে ইন্দোনেশিয়ার আমিল জাকাত ন্যাশনাল এজেন্সি প্রথম এ কর্মসূচি চালু করে।  ইসলামিক মেডিকেল সার্ভিসের অংশীদারিত্বে পুরো রমজানজুড়ে রাজধানীর প্রশাসনিক অঞ্চলজুড়ে এটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কর্মসূচির আহ্বায়ক রাজা জামজামি বলেন, এ ধরনের আয়োজনের জন্য রমজান সঠিক সময়। ট্যাটু তুলে ফেলা আল্লাহর ইবাদত করার মতো। এসব মানুষ অনুতপ্ত হতে চান। এ জন্য অতীতের ভুল ও জীবনযাপনপদ্ধতি বাদ দিতে চান তারা।’

সংস্থাটির ডেপুটি চেয়ারম্যান নাসির তাজং বলেন, আমরা চতুর্থ বছরের মতো এই কর্মসূচি পালন করেছি। কারণ জনসাধারণের কাছ থেকে প্রচুর সাড়া পেয়েছি।  শুধু এ বছরই আমরা ৬০০ জনকে নিবন্ধন করতে দেখেছি।

তাজাং বলেন, এই প্রোগ্রামটির মাধ্যমে আমরা বিশেষত নিম্ন আয়ের গোষ্ঠীর লোকদের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছি, কারণ ট্যাটু অপসারণ পদ্ধতিগুলো প্রায়শই ব্যয়বহুল হয়।

এই কর্মসূচিতে ট্যাটু অপসারণের জন্য নিবন্ধন করেছেন বিমা আবদুল সোলেহ (৩২)। তিনি বলেন, একপর্যায়ে আমি ভাবলাম, এসব ব্যবহার করে কী হবে? এর কোনো শেষ নেই। এ জন্য আমি অনুতপ্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

ইসলামি বিধান অনুযায়ী শরীরে ট্যাটু করা হারাম। কারণ, এটিকে শরীরের বিকৃতি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ইন্দোনেশিয়ায় ২২ কোটি মুসলমানের অনেকেই সুন্নি। দেশটিতে ট্যাটুকে নেতিবাচক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

 

সোনালী/ সা