ঢাকা | এপ্রিল ১৪, ২০২৪ - ৬:৩৬ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার নামে দুদকের মামলা

  • আপডেট: Tuesday, April 2, 2024 - 12:36 pm

স্টাফ রিপোর্টার: সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগে পুলিশের একজন সাবেক পরিদর্শকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুরে দুদকের রাজশাহী জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের পক্ষে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

মামলায় তার বিরুদ্ধে দুই কোটি টাকা মূল্যেরও বেশি স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলার আসামির নাম ফরিদুল ইসলাম খান (৬৩)। তিনি পুলিশে কর্মরত ছিলেন। সবশেষ রাজশাহীতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) থেকে অবসর নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি রাজশাহী মহানগরের বড়কুঠিপাড়া এলাকায় বসবাস করেন। তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের সুবর্ণগাতিতে।

দুদকের রাজশাহী জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।

মামলার পর দুদকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পাওয়া গেলে ফরিদুল ইসলাম খানকে তার সম্পদ বিবরণী দাখিল করতে বলা হয়েছিল। ২০২০ সালের ২২ সেপ্টেম্বর তিনি সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। এতে তিনি মোট ১৪ লাখ ৬২ হাজার ৭০০ টাকার স্থাবর সম্পদের বিবরণ দেন। সম্পদ বিবরণীতে তিনি কোনো অস্থাবর সম্পদের তথ্য উল্লেখ করেননি।

এরপর দুদকের অনুসন্ধানে তার নামে ২৮ লাখ ৯১ হাজার ৬১৯ টাকার স্থাবর সম্পদ ও ১ কোটি ৯৯ লাখ ৯৪ হাজার ৩৬৮ টাকার অস্থাবর সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। যাচাইকালে তার নামে মোট ২ কোটি ২৮ লাখ ৮৫ হাজার ৯৮৭ টাকার মোট সম্পদ পাওয়া যায়। তিনি ২ কোটি ১৪ লাখ ২৩ হাজার ২৮৭ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন।

দুদক জানিয়েছে, আয়বহির্ভূত অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং অসৎ উদ্দেশ্যে সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগে সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। দ্রুতই মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

 

সোনালী/ সা