ঢাকা | এপ্রিল ১৯, ২০২৪ - ৮:০১ পূর্বাহ্ন

দুর্গাপুরে ইউএনও কার্যালয়ের নামে মাংস নিয়ে যুবক উধাও

  • আপডেট: Sunday, March 31, 2024 - 9:00 pm

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: দুর্গাপুর উপজেলায় একজন ব্যক্তি মোহনগঞ্জ বাজারে কসাইখানায় গিয়ে নিজেদের ইউএনও অফিসের লোক বলে পরিচয় দেয়।

এরপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের নামে ২৮ কেজি ৬০০ গ্রাম গরুর মাংস নিয়ে উধাও হয়েছে। ঘটনায় ভুক্তভোগী কসাই থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটলে দুপুরে থানায় অভিযোগ দেন শাহরিয়ার মুন্না নামের ভুক্তভোগী কসাই। ভুক্তভোগী কসাই শাহরিয়ার মুন্না বলেন, সকালে মোহনগঞ্জ বাজারে এসে এক ব্যক্তি নিজেকে ইউএনও অফিসের লোক বলে থানার পরিচয় দেন।

এরপর জানায় ইউএনও স্যার পাঠিয়েছেন, তার কার্যালয়ে ছোট অনুষ্ঠান আছে। ২৮ কেজি গরুর গোশত লাগবে। সাথে একজন কসাই যেতে হবে, যেন প্রয়োজন অনুযায়ী গোশতের সাইজ করে দিতে পারে। আর কাজ শেষে বিল পরিশোধ করা হবে।

পরে জবাই করা গরুর বিভিন্ন অংশ থেকে ২৮ কেজি মাংসসহ কসাইকে সিএনজিতে তুলে ইউএনও কার্যালয়ে আনা হয়। এরপর প্রতারক ওই যুবক মাংস পরীক্ষা করতে হবে বলে পরে প্রাণীসম্পদ কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় নিয়ে যান। এ সময় মাংস পরীক্ষার নাম করে কসাইকে রাস্তায় রেখে সে কৌশলে মাংস নিয়ে পালিয়ে যায়।

পরে তাদের বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে, দুপুরে থানায় একটি অভিযোগ দেয়। ওই মাংসের মূল্য ২০ হাজার টাকার কিছু ওপরে বলে জানান ভুক্তভোগী শাহরিয়ার মুন্না।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খায়রুল ইসলাম বলেন, ওই ভুক্তভোগী থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। প্রতারক চক্রের বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

ইউএনও স্বীকৃতি প্রামাণিক বলেন, আমি থানা পুলিশকে অবহিত করেছি। তারা এসে সিসিটিভি ফুটেজ নিয়ে গেছে। প্রতারককে শনাক্তের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোনালী/জেআর