ঢাকা | এপ্রিল ২০, ২০২৪ - ৫:০১ পূর্বাহ্ন

মাদ্রাসায় শিশুশিক্ষার্থীকে নির্যাতন, কারাগারে শিক্ষক

  • আপডেট: Friday, March 29, 2024 - 3:25 pm

অনলাইন ডেস্ক: যশোরের চৌগাছায় এক মাদ্রাসাশিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার রাতে চৌগাছার কয়ারপাড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার ওই মাদ্রাসার অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।ভিডিওতে দেখা যায়, শিশুটিকে মাদ্রাসাশিক্ষক একের পর এক বেত্রাঘাত করছেন। এমনকি লাথিও মারছেন। এ সময় শিশুটি বারবার শিক্ষকের পা জড়িয়ে ধরে বাঁচার চেষ্টা করছে।

ভুক্তভোগী ১৩ বছর বয়সি সোনানুর রহমান সাজিদ জানায়, মোবাইল ফোনে এসএমএস দেওয়া নিয়ে তার ওপর ক্ষিপ্ত হন কয়রাপাড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক আখতারুজ্জামান। এতে তাকে বেধড়ক পেটান তিনি। পা ধরে বারবার ক্ষমা চাইলে বুক বরাবর লাথিও মারেন। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ জানিয়ে সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

সাজিদের বাবা আলী আকবর বলেন, তার ১৩ বছর বয়সি ছেলেকে নির্মমভাবে নির্যাতন করেছেন শিক্ষক আখতারুজ্জামান। এতে তার শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় ক্ষত হয়েছে।

এ ব্যাপারে চৌগাছা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, বৃহস্পতিবার নির্যাতিত শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে চৌগাছা থানায় মামলা করেন। এদিন অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

সোনালী/ সা