ঢাকা | এপ্রিল ২৩, ২০২৪ - ১:২০ অপরাহ্ন

২৯ রমজান কি অফিস খোলা?

  • আপডেট: Thursday, March 28, 2024 - 11:50 am

অনলাইন ডেস্ক: এবারের ঈদুল ফিতরের ছুটি নিয়ে দেখা দিয়েছে বিভ্রান্তি। মন্ত্রিপরিষদের অনুমোদিত ছুটির তালিকা অনুযায়ী ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। ঈদে সরকারি ছুটি থাকবে ১০ থেকে ১২ এপ্রিল। রমজান মাস ৩০ দিনে পূর্ণ হবে ধরে এ ছুটি নির্ধারণ করা হয়েছে। ছুটির তালিকা অনুযায়ী ৯ এপ্রিল, অর্থাৎ ২৯ রমজানে সরকারি অফিস খোলা থাকবে। কোনো কারণে ২৯ দিনে রমজান মাস পূর্ণ হলে ঈদের আগের দিনও অফিস চলবে।

বহু বছর ধরে চলে আসা রীতি অনুযায়ী, ২৮ রমজান অফিস শেষে ঈদের ছুটি শুরু হয়। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে পরের দিন ঈদ হতে পারে ধরে নিয়ে ২৯ রমজানে সরকারি ছুটি থাকে। রোজা ৩০টি হলে ৩০ রমজানও ছুটি থাকে। অফিস-আদালত বন্ধ থাকে ঈদ ও ঈদের পরের দিন। রোজা ২৯টি হলে ঈদের আগে-পরের দু’দিনসহ মোট তিন দিন ছুটি থাকে। রোজা ৩০টি হলে ছুটি থাকে চার দিন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা ২০২৪ সালের ছুটির তালিকা অনুযায়ী, ১১ এপ্রিল সাধারণ ছুটি। ঈদের আগের দিন ১০ এপ্রিল এবং পরের দিন ১২ এপ্রিল নির্বাহী আদেশে ছুটি। এ ব্যাপারে জনপ্রশাসনের অতিরিক্ত সচিব লুৎফর নাহার বেগম বলেন, ছুটির তালিকা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ অনুমোদন করে।

সরকারি চাকরিজীবীসহ অনেকের ধারণা ছিল, ভুলবশত ২৯ রমজানে ছুটি দেওয়া হয়নি। তবে সরকারের বিভিন্ন পর্যায় থেকে জানা গেছে, ভুল নয়; প্রযুক্তিগত নিশ্চয়তা থেকে ছুটির তালিকায় ২৯ রমজান রাখা হয়নি। ৩০ রোজা হলেও ঈদের ছুটি থাকবে তিন দিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ ছাড়া ছুটি বাড়ানো বা আগের মতো চার দিন ছুটি সম্ভব নয়।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মাহমুদুল হোসাইন খান সমকালকে বলেন, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়ে ছুটি নির্ধারণ করেছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন যে তালিকা দিয়েছে, সে অনুযায়ী এবার ৩০ রোজা হবে। ঈদ হবে ১১ এপ্রিল। তাই ৩০ রমজানঈদ ও পরের দিন ছুটি থাকবে। প্রযুক্তির কল্যাণে এখন আগে থেকেই জানা যায়, কয়টি রোজা হবে, কবে ঈদ হবে। আগে অনিশ্চয়তা ছিল, সে কারণে ২৮ রমজানে ছুটি হয়ে যেত। এখন যেহেতু আগেই জানা যাচ্ছে কী হবে, সেই আলোকে সিদ্ধান্ত হচ্ছে।

রমজান মাস ২৯ দিনে পূর্ণ হলে ঈদের আগের দিনও অফিস করতে হবে– এমন সম্ভাবনার বিষয়ে মাহমুদুল হোসাইন খান বলেন, তেমনটা হবে না।

তবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বলছে ভিন্ন কথা। সংস্থাটির মহাপরিচালক মহা. বশিরুল আলম সমকালকে বলেন, রোজা শুরু ও শেষের হিসাব অন্য বছর সরকারকে যেভাবে দেওয়া হয়, এবারও একইভাবে দেওয়া হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন বলেনি, ৩০ দিনে নাকি ২৯ দিনে রমজান মাস পূর্ণ হবে। ঈদ কবে হবে, তা নির্ধারণ করবে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। ২৯ রমজান সন্ধ্যায় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক। সেদিন চাঁদ দেখা হলে পরের দিন ১০ এপ্রিল ঈদ হবে। না দেখা গেলে ১১ এপ্রিল ঈদ হবে। ছুটি নির্ধারণ সরকারের এখতিয়ার।

বাংলাদেশ মহাকাশ গবেষণা এবং দূর অনুধাবন কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ শহিদুল ইসলাম সমকালকে জানিয়েছেন, ৯ এপ্রিল চাঁদ দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। এ বছর রমজান মাস ৩০ দিনেই পূর্ণ হবে।

তবে এতে লাভ হচ্ছে না চাকুরেদের। নগরবাসী যেন ঈদযাত্রায় ধাপে ধাপে স্বস্তিতে গ্রামে যেতে পারে, সে জন্য শুধু ৯ এপ্রিল নয়; ৮ এপ্রিলও ছুটি ঘোষণার দাবি জানিয়েছে যাত্রী কল্যাণ সমিতি। ঈদের ছুটির পর ১৩ এপ্রিল শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। পরের দিন পহেলা বৈশাখের সাধারণ ছুটি।

সোনালী/ সা