ঢাকা | এপ্রিল ১৫, ২০২৪ - ৮:৪৭ অপরাহ্ন

শেকড়ের টানে একত্রিত ‘আমরা মৈত্রী পরিবার’

  • আপডেট: Wednesday, March 27, 2024 - 9:45 pm

স্টাফ রিপোর্টার: যে স্বপ্ন, আদর্শ ও চেতনা নিয়ে ‘মৈত্রী’র প্রতি প্রথম ভালোবাসা; সেই ভালোবাসার ভিত্তি বা শেকড়ের টানে রাজশাহীতে একত্রিত হয়েছেন ছাত্রমৈত্রী-যুবমৈত্রীর সাবেক ও বর্তমান নেতারা।

এখন থেকে দুই-তিন দশক আগে মৈত্রীর পতাকা নিয়ে যেসব নেতাকর্মী মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রেক্ষিতে রাজপথে সক্রিয় ও কার্যকর ভূমিকা রেখেছেন; বর্তমানে তারা নানাভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকলেও এবার ‘আমরা মৈত্রী পরিবার’-এর ব্যানারে একত্রিত হয়েছেন।

তাদের লক্ষ্য, সংগঠনের মধ্যে নিজেদের যোগাযোগ বৃদ্ধি, যারা কিছুটা নিষ্ক্রিয় তাদের সক্রিয় করা, মূল সংগঠনের সঙ্গে সমন্বয় রেখে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের ভিত্তিতে রাজপথে গণমানুষের পক্ষে কার্যকর ভূমিকা রাখা ইত্যাদি।

গত মঙ্গলবার বিকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের পেছনে প্রথমবারের মতো ‘আমরা মৈত্রী পরিবার’ ব্যানারে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর যুবমৈত্রীর সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি। সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা শামীম ইমতিয়াজ। সংক্ষিপ্ত আকারে আলোচনা শেষে ‘আমরা মৈত্রী পরিবার’-এর আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটিতে মতিউর রহমান মতিকে আহ্বায়ক ও শামীম ইমতিয়াজ সুমনকে সদস্য সচিব নির্বাচিত করা হয়েছে।

এছাড়াও যুবমৈত্রীর নেতা ও সাবেক ছাত্রনেতা রায়হান হালিম, কামরুল হাসান সুমন, শাহিদ হোসেন শিশির, হাফিজুর রহমান সাগর, দেলোয়ার হোসেন নয়ন, আকছারুজ্জামান সুমন, মোহায়মিনুল হক রানা, ইমাম হোসেন, মনিরুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ জনকে যুগ্ন আহ্বায়ক নির্বাচিত করা হয়েছে। মহানগর যুবমৈত্রীর সকল নেতা ও সকল সদস্যরা ‘আমরা মৈত্রী পরিবার’-এর সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবেন বলেও আলোচনা সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

‘আমরা মৈত্রী পরিবার’-এর আহ্বায়ক ও মহানগর যুবমৈত্রীর সভাপতি কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি জানান, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি এই প্লাটফর্মটি আমাদের পরিবারের মতো কাজ করবে। আমরা যারা মৈত্রীকে ভালোবেসে, উপলব্ধি করে রাজনীতিতে এসেছি; তাদের কাছে এই পরিবার বর্তমানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও প্রাসঙ্গিক। এই পরিবারের অভিভাবক জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা। তার সঙ্গে আলোচনা করে আগামীতে মৈত্রী পরিবার-এর একটি মিলনমেলা করার ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সোনালী/জেআর