ঢাকা | এপ্রিল ১৫, ২০২৪ - ১০:৩৯ অপরাহ্ন

নতুন প্রজন্মকে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: বাদশা

  • আপডেট: Monday, March 25, 2024 - 10:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: দেশপ্রেম ও স্বাধীনতার প্রকৃত চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে নতুন প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা।

২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেয়া বাণীতে তিনি এই আহ্বান জানিয়েছেন।

বাণীতে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে দেশে ও প্রবাসে বসবাসরত সকল বাংলাদেশিকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন ফজলে হোসেন বাদশা।

বাণীতে বাদশা বলেন, ১৯৫২ সালের রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনের মধ্যদিয়ে যে স্বাধিকারের চেতনার উন্মেষ ঘটেছিল, তা ধাপে ধাপে স্বাধীনতার আন্দোলনে রূপ নেয়। দ্বিজাতিতত্ত্বের ভিত্তিতে উপমহাদেশ ভাগের পর পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকরা বাঙালি জাতির ওপর শোষণ এবং ভাষা ও সংস্কৃতির ওপর যে আগ্রাসন চালাতে থাকে তার প্রেক্ষাপটে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধিকারের দাবিতে জেগে ওঠে নিরীহ বাঙালি। ২৫ মার্চ রাতে ভারী অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত পাকিস্তানি সেনাবাহিনী ও তাদের দোসর রাজাকার, আলবদর, আলশামস চালায় বর্বর গণহত্যা।

৯ মাসের মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ বাঙালি শহিদ হন। ২ লাখ নারী নিপীড়ন, যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণের শিকার হন। প্রশিক্ষণহীন নিরস্ত্র বাঙালিরা যেভাবে একটি সুশৃঙ্খল অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রে সজ্জিত সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিল, পৃথিবীর ইতিহাসে তেমন সংগ্রামের দৃষ্টান্ত বিরল। সেই লড়াইয়ে যারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অংশ নিয়েছিলেন, দেশকে স্বাধীন করার লক্ষ্যে বুকের রক্ত ঢেলে দেয়ার শপথ করেছিলেন, আমি কৃতজ্ঞচিত্তে তাদের স্মরণ করি।

জাতীয় এই রাজনীতিক আরও বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ হতে হবে। কারণ আগামীর দেশ তাদের হাতে। তারা যদি মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত আকাঙক্ষাকে উপলব্ধি করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারে, তবেই আমাদের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে। তাই তাদের কাছে মহান মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব রাষ্ট্রকে নিতে হবে। তারা যদি দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়, তবে বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও দুঃশাসনের কোন স্থান হবে না।

সোনালী/জেআর