ঢাকা | এপ্রিল ২০, ২০২৪ - ৮:০৫ অপরাহ্ন

বাঘায় সেনা সদস্যের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  • আপডেট: Tuesday, March 12, 2024 - 10:00 pm

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘায় এক সেনা সদস্যের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে উপজেলার দীঘা গ্রামে নিজ শয়ন কক্ষে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় উড়না পেচানো অবস্থায় এ লাশ উদ্ধা করা হয়।

এ ঘটনায় গৃহবধূর পিতা ইয়াসিন আলী থানায় তার জামাই এর বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। মঙ্গলবার লাশ রামেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়।

স্থানীয় একধিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দীঘা নওদাপাড়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে সেনা সদস্য পাভেল আহাম্মেদ (৩৭) এর সাথে প্রায় ১০ বছর পূর্বে বিয়ে হয় পাশ্ববর্তী লালপুর উপজেলার আব্দুলপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর মেয়ে রোকাইয়া ইয়াসমিন-ইরার (২২)। তাদের ঘরে বর্তমানে ৭ বছরের একটি সন্তান রয়েছে।

বর্তমানে ইরা চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা। লোকজন আরও জানান, বিয়ের পর তাদের দু’জনার মধ্যে দাম্পত্ত জীবন সুখের হলেও বর্তমানে নানা কারণে তাদের মধ্যে অন্ত-কোলহ বিরাজ করছিল। সর্বশেষ সোমবার রাত ৯ টার দিকে পাভেল বাড়িতে থাকা অবস্থায় তার নিজ ঘর থেকে গলাই উড়না পেচানো স্ত্রীর লাশ উদ্ধা করে পুলিশ।

এ নিয়ে স্থানীয় লোকজন ভিন্ন-ভিন্ন মত প্রকাশ করেছেন। অনেকের মতে, এই মুত্যুর পেছনে রহস্য লুকায়িত রয়েছে। তবে পুলিশ মৃত ইরার শরীরে কোন আঘাতের চিহৃ পাননি বলে জানান।

এ ঘটনায় মৃত ইরার পিতা বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এতে মৃত্যুকে তিনি আত্নহত্যার প্ররোচণা উল্লেখ করে জামাই এর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে আমরা রাতে লাশ উদ্ধার করে মঙ্গলবার রামেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছি। এই মৃত্যু নিয়ে গৃহবধূর পিতা একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। তবে পোস্ট মর্টেম রিপোর্ট এলে সবকিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে।

সোনালী/জেআর