ঢাকা | এপ্রিল ১৬, ২০২৪ - ৬:৫৮ পূর্বাহ্ন

চিকিৎসাসেবায় গাফিলতি বরদাশত করা হবে না: রাজশাহীতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • আপডেট: Sunday, March 10, 2024 - 10:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডা.সামন্ত লাল সেন বলেছেন, চিকিৎসা সেবায় চিকিৎসকদের গাফিলতি কোনোভাবেই আর বরদাস্ত করা হবে না। আর রোগীর স্বজনরাও যে কথায় কথায় চিকিৎসকদের ওপর চড়াও হবেন, হাসপাতালে গিয়ে ভাঙচুর করবেন তাও মেনে নেওয়া হবে না।

রোববার সন্ধ্যায় রাজশাহী সার্কিট হাউজে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, রাজশাহীতে অজানা রোগে মারা যাওয়া দুই শিশুর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। বিষয়টি এখনো তদন্তাধীন রয়েছে। এছাড়া সম্প্রতি খতনা দেওয়ার সময় শিশু মৃত্যুর বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান।

এর আগে মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিজ এলাকায় চিকিৎসা সেবার খোঁজ-খবর নেওয়ার আহ্বান জানান। বেসরকারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র পরিচালনার জন্য ১০টি নির্দেশনা প্রদান করা হয়। এ নির্দেশনা না মানলে সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজশাহী বিভাগের স্বাস্থ্য পরিচালক ও স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত সংশ্লিষ্টদের সবার সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এতে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী রোকেয়া সুলতানা, রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান বাদশাসহ স্বাস্থ্য বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে এর আগে নওগাঁর পত্নীতলায় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও কৃষি জীবী স্বাস্থ্য সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, বেসরকারি ক্লিনিক, সরকারি হাসপাতালে সব জাযগায় সারা বছর পরিদর্শন অব্যাহত থাকবে। গড়মিল পাওয়া গেলে তা বন্ধ করে দেওয়া হবে। সরকারি হাসপাতালের অসঙ্গতিগুলো সমাধান করা হবে বলেও জানান তিনি।

রোববার পত্নীতলার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক একাডেমির অডিটোরিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা চিকিৎসক প্রজন্ম এর আয়োজনে এর সভাপতি প্রফেসর ডা. কাজী শফিকুল হালিম জিম্মু এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.সামন্ত লাল সেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকারএমপি, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা: রোকেয়া সুলতানা এমপি, মেহেরপুর -২ আসনের সংসদ সদস্য ডা: আবু সালেহ্ মোহাম্মদ নাজমুল হক, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের মহাসচিব ডা: মো: ইহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা.আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

উপস্থিত ছিলেন পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টুকটুক তালুকদার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল গাফ্ফার, ওসি মোজাফফর হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আহাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খাদিজাতুল কোবরা মুক্তা, ইম্প্রশন ফাউন্ডেশনের শাকিল রাব্বানী, রাশেদ রানাসহ বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তাবৃন্দ, সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ স্থানীয় সুধিজন। এ সময় ক্যান্সার, কিডনি, ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত দুই হাজার রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ প্রদান করা হয়।

সোনালী/জেআর