ঢাকা | এপ্রিল ১৯, ২০২৪ - ৬:২৫ পূর্বাহ্ন

পবার সাব রেজিস্ট্রি অফিসের সেই নকল নবীশ জেল হাজতে

  • আপডেট: Wednesday, March 6, 2024 - 9:22 pm

স্টাফ রিপোর্টার: পবা সাব রেজিস্ট্রি অফিসের নকল নবীশ আফরোজা খাতুন অবশেষে জেল হাজতে। নিজ বোনের বাড়ি জবরদখলে রাখার দায়ে তাকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, বিদেশে অবস্থানরত তহমিনা খাতুনের চন্দ্রিমা থানাধীন এলাকার সোনালী ব্যাংকপাড়া এলাকায় মিনা নিবাসের আমমোক্তার এসএম আয়নাল হক। তিনি নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে চুক্তি করে বিবাদী আফরোজা খাতুনকে মাসিক আট হাজার টাকায় মিনা নিবাস ভাড়া দেন।

২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে এই চুক্তি নামায় স্বাক্ষর ও সম্মত হয়ে আফরোজা খাতুন মিনা নিবাসে বসবাস করতে থাকেন। আফরোজা খাতুন ওই সালের মাত্র তিন মাসের ভাড়া পরিশোধ করলেও পরবর্তীতে কোন ভাড়া পরিশোধ করেননি। এতে বকেয়া রয়ে যায় দুই লাখ ৫১ হাজার টাকা।

এই টাকা পরিশোধ ও বাড়ি ছাড়ার জন্য তাকে ১৫ দিন সময় বেধে একটি লিগ্যাল নোটিশ দেয়া হয়। কিন্তু টাকা পরিশোধ না করে আমমোক্তার এসএম আয়নাল হককে গালি-গালাজ ও মারমুখি আচরণসহ প্রাণ নাশের হুমকি দেয়।

তিনি বকেয়া টাকা আদায় ও প্রাণনাশের হুমকির বিষয়ে পবা সাব রেজিস্ট্রি অফিসের নকল নবীশ আফরোজা খাতুনের বিরুদ্ধে চলতি বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি মহানগর রাজশাহীর আমলী আদালত চন্দ্রিমা মামলা করেন। এই মামলায় রোববার দিবাগত রাতে চন্দ্রিমা থানা পুলিশ আফরোজা খাতুনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠায়।

জানা গেছে, এরআগে পবা সাব রেজিস্ট্রি অফিসের নকল নবীশ আফরোজা খাতুন তার নিজ বোন ইকতার জাহান ইতির বাড়ি নির্মাণ কাজ বন্ধ এবং ভাঙচুর করেন। এ ব্যাপারে আদালতে মামলা হয়। মামলা নোটিশ না নিয়ে নোটিশ পৌছানোকারির সাথে মারমুখি আচরণ করেন। যা ছবিসহ পত্রিকায় প্রকাশ হয়। আফরোজা খাতুনের দৌরাত্ম, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে পবা সাব রেজিস্ট্রি অফিস থেকে অপসারণ ও বদলীর আবেদন করেন তার নিজ বোন ইকতার জাহান ইতি।

এদিকে বুধবার নকল নবীশ আফরোজা খাতুনের বিরুদ্ধে পবা সাব রেজিস্ট্রি অফিসে বিনা ছুটিতে অনুপস্থিত থাকায় তাকে অপসারণসহ বরখাস্তের আবেদন জানিয়েছেন দলিল লেখক এসএম আয়নাল হক।

এ ব্যাপারে পবা সাব রেজিস্ট্রার সাদেকুর রহমান বলেন, পবা সাব-রেজিস্ট্র অফিসে বর্তমানে দুইজন সাব রেজিস্ট্রার খন্ডকালীন অফিস করে থাকে। এ সপ্তাহে আমি একদিন কাজ করেছি। বিষয়টি আমার নজরে আসেনি। বৃহস্পতিবার খোঁজ নিয়ে পদক্ষেপ নিবেন বলে জানান তিনি।

সোনালী/জেআর