ঢাকা | এপ্রিল ২৩, ২০২৪ - ৩:০৩ অপরাহ্ন

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাহারের আহ্বান ওয়ার্কার্স পার্টির

  • আপডেট: Wednesday, February 28, 2024 - 10:00 pm

সোনালী ডেস্ক: সরকার নির্বাহী আদেশের মাধ্যমে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণার প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি।

বুধবার পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন ও সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এক বিবৃতিতে বিইআরসি’র গণশুনানির প্রক্রিয়া বাদ দিয়ে একতরফা নির্বাহী আদেশে এই মূল্যবৃদ্ধির আগাম ঘোষণা জনগণকে উপেক্ষা করে সরকারের দাম্ভিকতা দেখানোর শামীল বলে মন্তব্য করেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, সমন্বয়ের নামে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনগণের ওপর আরেক দফা আর্থিক চাপ তৈরি করবে। উৎপাদিত পণ্য মূল্য বৃদ্ধি পাবে। বিশেষ করে দৈনন্দিন জীবন যাত্রার ব্যয় ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিষ পত্রের দাম বাড়বে; যা সামগ্রীক অর্থনীতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে এবং জনজীবনের সংকট তৈরি করবে। এই মূল্যবৃদ্ধি স্বল্প আয়ের মানুষের বিদ্যুতের ব্যবহার নাগালের মধ্যে থাকবে না।

বিবৃতিতে তারা বলেন, বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি হলে শিল্প উৎপাদন ক্ষতির মুখে পড়বে। কলকারখানা বন্ধ হবে, বাধাগ্রস্ত হবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার ঘোষণা দিয়েছে দ্রব্যমূল্য কমানো তাদের অগ্রাধিকার, অথচ দফায় দফায় চাল, ডাল তেল ও চিনি, পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বেড়েই চলছে, বাজার সিন্ডিকেট মোকাবেলায় সরকার ব্যর্থ হচ্ছে।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘ভর্তুকি কমিয়ে নয়, দুর্নীতি, ভ্রান্তনীতি ও অব্যবস্থাপনা অদক্ষতা কমিয়েই গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানি ও দ্রব্যমূল্য সাশ্রয়ী রাখা যায়। বিবৃতিতে তারা বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান।

সোনালী/জেআর