ঢাকা | এপ্রিল ১৪, ২০২৪ - ৭:২১ অপরাহ্ন

একুশের চেতনা খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন তীব্রতর করবে

  • আপডেট: Tuesday, February 20, 2024 - 9:39 pm

অনলাইন ডেস্ক: মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এতে তিনি বলেছেন, একুশের চেতনা গণতন্ত্র ও ও খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন তীব্রতর করবে।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে এ বিবৃতি পাঠান ফখরুল। তিনি সরকারের সমালোচনা করে এতে বলেন, একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে দখলকৃত ক্ষমতা সম্প্রসারণের প্রচেষ্টায় সরকার বেপরোয়া ও অত্যাচারী হয়ে উঠেছে।

সরকার হটানোর প্রচেষ্টায় একুশের চেতনা বিএনপির আন্দোলনকে অনুপ্রাণিত করেছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে এ দেশের সংগ্রামী মানুষ মৃতপ্রায় গণতন্ত্রের পুনরুজ্জীবনসহ খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনকে আরও জোরালো ও তীব্রতর করবে।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন ফকরুল।

শহীদদের ব্যাপারে তিনি বলেন, মাতৃভাষার জন্য জীবন উৎসর্গ করে তারা আত্মত্যাগের যে মহিমান্বিত দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন, পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে তা আমাদেরকে অনুপ্রাণিত করেছে। তাদের আত্মদানের ধারাবাহিকতায় গণতান্ত্রিক ও স্বাধিকার আন্দোলনের পথ বেয়ে আমরা অবতীর্ণ হয়েছি স্বাধীনতা যুদ্ধে। অর্জিত হয়েছে স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। জাতি হিসেবে মাতৃভাষার প্রতি আমাদের ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা প্রকাশের এক গর্বিত দিন একুশে ফেব্রুয়ারি।

বিএনপির এ নেতা বলেন, জাতীয়তাবোধ ও অধিকারবোধের চেতনা পরিপূর্ণতা পায় মহান একুশে ফেব্রুয়ারি ছাত্রদের আত্মত্যাগের মাধ্যমে। সেই চেতনা নস্যাৎ করে একদলীয় শাসনের জগদ্দল পাথর আজ জনগণের কাঁধের ওপর চাপানো হয়েছে। গণতন্ত্রকে সমাহিত করে অপশাসনের বেড়াজালে গোটা জাতিকে অবরুদ্ধ করা হয়েছে।

অবৈধ শক্তির জোরে সাজানো মিথ্যা মামলায় ফরমায়েশি সাজা দিয়ে খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে বন্দি করে প্রতিহিংসা চরিতার্থ করা হয়েছে। ৭ জানুয়ারি একতরফা ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও দখলকৃত ক্ষমতা সম্প্রসারণের প্রচেষ্টায় বেপরোয়া ও অত্যাচারী হয়ে উঠেছে অবৈধ সরকার।

ভাষা শহীদদের অবদানের কারণে অমর একুশে ফেব্রুয়ারি আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে সারা বিশ্বে পালিত হচ্ছে উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল আরও বলেন, আমাদের ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতিকে চর্চার মাধ্যমে অধিকতর সমৃদ্ধশালী করে তুলতে সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। যাতে জাতি হিসেবে বিশ্বসভায় আমাদের সম্মান ও মর্যাদা আরও বেশি উচ্চস্থান লাভ করে।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি কারাগার থেকে মুক্তি পান মির্জা ফখরুল। গতকাল সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। সোমবার রাত ৮টার পরে তিনি গুলশানে খালেদার বাড়ি ফিরোজায় যান। রাত সাড়ে নয়টার পর তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন।

দলের চেয়ারপারসনের সঙ্গে কী কথা হয়েছে- সে ব্যাপারে ফখরুল নিজে বা দলের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

গত ২৮ অক্টোবর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশে সংঘাত হওয়ার পরদিন ২৯ অক্টোবর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ।

ওই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা হয়। তিন মাসের বেশি সময় ধরে কারাভোগ করেন বিএনপির এ জ্যেষ্ঠ নেতা।

সোনালী/জেআর