ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ১০:৫৯ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে শিক্ষক পদে চাকরির প্রলোভন, ৩ পুলিশ সদস্য গ্রেপ্তার

  • আপডেট: Sunday, February 4, 2024 - 5:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহীতে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার অভিযোগে তিন পুলিশ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। এর আগে তাদের আটক করে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

তাদের মধ্যে একজন সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ও দুইজন কনস্টেবল। শনিবার সন্ধ্যায় তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন কারিমা খাতুন নামের এক পরীক্ষার্থী। পরে এই মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তারা হলেন, এএসআই গোলাম রাব্বানী, কনস্টেবল আবদুর রহমান ও শাহরিয়ার পারভেজ শিমুল।

এএসআই গোলাম রাব্বানী আগে আরএমপিতে কনস্টেবল পদে ছিলেন। পরে তিনি পদোন্নতি পেয়ে এএসআই হন। আবদুর রহমান ও শাহরিয়ার পারভেজ শিমুল রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) সদর দপ্তরে কর্মরত ছিলেন।

শাহরিয়ার পারভেজ শিমুলের বাড়ি রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায়। আবদুর রহমানের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ। তাদের তিনজনকে শনিবার রাতে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, শুক্রবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার আগে গ্রেপ্তারকৃতরা ১৫-২০ জন চাকরিপ্রার্থীকে পাস করিয়ে দেওয়ার চুক্তি করেন। পরীক্ষার্থীদের প্রত্যেককে খুবই ছোট আকারের হেডফোন দেন। এই হেডফোনের মাধ্যমে বাইরে থেকে পরীক্ষার্থীকে প্রশ্নের সব উত্তর বলে দেওয়ার কথা ছিল।

এ জন্য পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১০ থেকে ১২ লাখ টাকা করে নেওয়ার চুক্তি করে। পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে নেওয়া হয়েছিল চেক ও স্ট্যাম্প। পুলিশের অভিযানে কিছু স্ট্যাম্প, ১০ লাখ টাকার একটি চেক এবং ১৪টি গোপন ডিভাইস উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পরীক্ষার আগের রাতে এই পুলিশ সদস্যদের এমন তৎপরতার বিষয়ে জানতে পেরে প্রথমেই আরএমপি সদর দপ্তরের কম্পিউটার অপারেটর শাহরিয়ার পারভেজ শিমুল ও আবদুর রহমানকে আটক করে আরএমপির গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তাদের নগর ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে রাখা হয়। তাদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানা থেকে এএসআই গোলাম রাব্বানীকে আটক করা হয়।

পুলিশের ধারণা, এ চক্রের সঙ্গে পুলিশের বাইরের লোকও জড়িত। তাদের সঙ্গে আর কে জড়িত তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। চক্রটির বিরুদ্ধে অভিযানও চালানো হচ্ছে।

রাজশাহীর অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার জামিরুল ইসলাম বলেন, প্রতারণার চেষ্টার অভিযোগে এক পরীক্ষার্থী শনিবার সন্ধ্যায় রাজপাড়া থানায় একটি মামলা করেছেন। মামলায় পাঁচজনকে আসামি করা হয়েছে।

এর মধ্যে তিনজনের নাম উল্লেখ আছে। দুজনকে অজ্ঞাতনামা উল্লেখ করেছেন ভুক্তভোগী। এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে এএসআই গোলাম রাব্বানী এবং কনস্টেবল আবদুর রহমান ও শাহরিয়ার পারভেজ শিমুলকে শনিবার রাতে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা হয়েছে।

সোনালী/জেআর