ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৯, ২০২৪ - ৬:০৭ অপরাহ্ন

বিছানায় পড়েছিল মা-মেয়ের লাশ, গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার বাবা

  • আপডেট: Friday, February 2, 2024 - 4:55 pm

অনলাইন ডেস্ক: নীলফামারীতে গলাকাটা রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরের বাইরে ঢলে পড়েন আশিকুল মোল্লা বাবু নামের এক ব্যবসায়ী। তাকে উদ্ধার করে দ্রুত নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতলে।

এদিকে ঘরের ভেতরে গেলে দেখা যায় বিছানায় পড়ে আছে ওই ব্যবসায়ীর স্ত্রী ও দুই মেয়ের মরদেহ।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকালে সদর উপজেলার দারোয়ানি বন্দরবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

নিহতরা হলেন – আশিকুল মোল্লা বাবুর স্ত্রী তহুরা বেগম ( ৩০), তার বড় মেয়ে তানিয়া আক্তার (১১) ও ছোট মেয়ে জারিন আক্তার (৬)।

ঘটনাটিকে রহস্যজনক বলছে পুলিশ।

নীলফামারী সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) তানভীরুল ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে কাজ করছি। ওই ব্যক্তিকে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

বাবুর ছোট ভাই জাকির হোসেন মোল্লা বলেন, সকাল বেলা গলাকাটা অবস্থায় বাড়ির বাইরে বের হতে দেখে এলাকাবাসী তাকে (বাবুকে) উদ্ধার করে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখানকার চিকিৎসক তাকে রংপুরে রেফার করেন।

পরিবারের কেউ কেউ মনে করছেন, স্ত্রী-সন্তানদের শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ব্যবসায়ী বাবু আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।

এমন ধারণার বিষয়ে জাকির হোসেন বলেন, বাবু ভাই ব্যবসায় আর্থিক ক্ষতিতে পড়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন। এ কারণে এ ঘটনা ঘটাতে পারেন।

সোনালী/জেআর