ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৯, ২০২৪ - ৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

শীতে সিংহের খাঁচায় রুম হিটার, ঘোড়াকে দেওয়া হলো কম্বল

  • আপডেট: Sunday, January 28, 2024 - 12:00 am

অনলাইন ডেস্ক: প্রায় এক মাস ধরে রংপুরসহ সারা দেশে শীতের সঙ্গে বয়ে যাচ্ছে হিমেল হাওয়া। এ অবস্থায় মানুষের পাশাপাশি প্রাণিজগতেও নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। বাদ যায়নি রংপুর চিড়িয়াখানার পশু-পাখিগুলো। চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বলেছে, এসব বিবেচনা করে শীতে পশু-পাখিদের বিশেষ যত্ন নেয়া হয়েছে।

এর অংশ হিসেকে শীত নিবারণে সিংহের খাঁচায় রুম হিটার দিয়ে পরিবেশ গরম রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। আর ঘোড়ার গায়ে দেওয়া হয়েছে কম্বল। এ ছাড়া বেশকিছু প্রাণীর উষ্ণতার জন্য খড় এবং চট ব্যবহার করা হচ্ছে। হরিণ, বানর, ঘোড়া, গাধা, বাঘ, সিংহ, উটপাখি, ইমু পাখি, চিল পাখিসহ অন্যান্য পশুপাখি শীতে নেতিয়ে পড়েছে।

গতকাল দুপুরে সূর্যের আলো দেখা যাওয়ায় প্রাণীগুলো যেন হাঁফ ছেড়েছে। প্রতিটি খাঁচার ভিতরে পশু-পাখিগুলো গুটিসুটি মেরে বসে আছে। খাঁচার ভিতরে শীতে কাহিল সিংহ ও বাঘ। বানরগুলো লাফালাফি না করে খাঁচার কোনায় চুপিসারে বসে রয়েছে।

চিড়িয়াখানার কিউরেটর ডা. আম্বর আলী তালুকদার বলেন, শীতে প্রাণীদের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সব সময়ের জন্য চিকিৎসাসেবা, অসুস্থ হলে প্রয়োজনীয় ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। যেসব প্রাণী একেবারে শীত সহ্য করতে পারে না, তাদের প্রতিটি খাঁচার চারদিকে চট দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে।

সোনালী/জেআর