ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২০, ২০২৪ - ১০:৪৩ অপরাহ্ন

রাজশাহী ও পাবনায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ ৪ জনের মৃত্যু

  • আপডেট: Saturday, January 20, 2024 - 8:55 pm

সোনালী ডেস্ক: মোহনপুরে বাসের ধাক্কায় শিশুসহ ভ্যান চালক নিহত হয়েছেন। এছাড়ও আহত হয়েছে আরও দুইজন।  অপরদিকে পাবনাতেও সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন তিনজন।

মোহনপুর প্রতিনিধি জানান, বাসের ধাক্কায় শিশুসহ ভ্যান চালক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে দুইজন। শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে রাজশাহী-নওগাঁ মহাসড়কের মোহনপুর উপজেলার সইপাড়া জামে মসজিদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

নিহতরা হলেন, মোহনপুর উপজেলার হাটরা গ্রামের মৃত শাহাদত হোসেনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৪০), একই উপজেলার বড়াইল গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে আব্দুল্লাহ (৯)। এর মধ্যে সিরাজুল ভ্যানচালক আর আব্দুল্লাহ যাত্রী।

তারা দুইজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ ঘটনায় আহত হয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মৃত আব্দুল্লাহর বাবা আব্দুল কুদ্দুস (৩৫) ও বোন নাফিজা (১০)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে দাদা আবু তালেব, ছেলে আব্দুল কুদ্দুস ও নাতী, নাতনীদের নিয়ে মোহনপুর উপজেলার একদিতলা হাটে পান বিক্রি করতে যান। পান বিক্রি শেষে মহানসড়ক দিয়ে কেশরহাটের দিকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। এমন সময় সইপাড়া এলাকায় বাগমারার ভবানীগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা একটি বাস ভ্যানকে ধাক্কা দেয়।

এতে ভ্যানের দুই যাত্রী ঘটনাস্থলে নিহত হন। পরে আহতদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বাসের চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছেন।

মোহনপুর থানার ইন্সপেক্টর মো. আছের আলী বলেন, ঘটনার পর আহদের উদ্ধার করে প্রথমে মোহনপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় বাসটি জব্দ করা হয়েছে। থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

অপরদিকে পাবনা প্রতিনিধি জানান, পাবনার ঈশ্বরদীতে যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মাইক্রোবাসের দুই যাত্রী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো তিনজন।

পাকশী হাইওয়ে থানার ওসি আশীষ স্যানাল জানান, শনিবার সকালে পাবনা থেকে একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো-চ ১৬-০৮৭১) কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিল। সকাল ৭ টার দিকে মাইক্রোবাসটি পাবনা-কুষ্টিয়া মহাসড়কের ঈশ্বরদী উপজেলার মিরকামারী নামকস্থানে পৌছালে কুষ্টিয়া থেকে ছেড়ে আসা এসএন (ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৫৩৭০)নামের যাত্রীবাহি বাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে মাইক্রোবাসের পাঁচ যাত্রী আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার নাছিম (৪৫) ও অমিত কুন্ডু (৪০) কে মৃত ঘোষনা করেন। নিহত নাছিম ঈশ^রদী উপজেলার শেখপাড়া গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে আর আমিত কুন্ডু পাবনা শহরের রাধানগর মজুমদার পাড়ার সুব্রত কুমার কুন্ডুর ছেলে।

আহত অপর তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন ঈশ্বরদী উপজেলার সাড়া ঝাউদিয়া এলাকার আফিল উদ্দিনের ছেলে আতিয়ার (৩৩) আটঘড়িয়া উপজেলার দেবত্তর এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে আমিনুল ইসলাম (৪৪) ও পাবনা সদও উপজেলার চরঘোষপুর এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল কাদে। (৩৫)। বাস ও মাইক্রোবাটি জব্দ করে পাকশী হাইওয়ে থানায় রাখা হয়েছে।

সোনালী/জেআর