ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২৪ - ৩:৫০ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর চাকরিমেলা

  • আপডেট: Wednesday, November 22, 2023 - 7:52 pm

স্টাফ রিপোর্টার: তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকে সমাজের মূল স্রোতধারায় ফিরিয়ে আনতে তাদের আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে রাজশাহীতে দিনব্যাপী চাকরি মেলা হয়েছে।

উন্নয়ন সংগঠন দিনের আলো হিজড়া সংঘের উদ্যোগে বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর শাহ ডাইন কনভেনশন সেন্টারে মেলার উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর।

রাজশাহী দিনের আলো হিজড়া সংঘের সভাপতি মোহনা মুহিনের সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশনস) মুহাম্মদ হেমায়েতুল ইসলাম, রাজশাহী ব্যবসায়ী সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী ও দিনের আলো হিজড়া সংঘের উপদেষ্টা বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট শরীফ সুমন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বলেন, কাউকে পেছনে রেখে উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। প্রত্যেক মানুষেরই প্রতিভা আছে। ইচ্ছে করলে সবাই সৎভাবে কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ভালো কাজ করতে পারে। লিঙ্গ পরিচয় এখানে মূল বিষয় নয়, বিষয় হচ্ছে যোগ্যতা। যোগ্যতার মাধ্যমেই মানুষকে বিচার-বিবেচনায় আনতে হবে। লিঙ্গবৈচিত্র্যময় জনগোষ্ঠীকে কোনোভাবেই পিছিয়ে রাখা যাবে না। প্রধানমন্ত্রী এরই মধ্যে তাদের ‘তৃতীয় লিঙ্গ’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। তাদের আলাদা পরিচয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্রসহ সরকারি সব সুযোগ-সুবিধা ভোগ করার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ২০১৯ সাল থেকে তারা তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে ভোটাধিকার পেয়েছে। এরই মধ্যে একজন ইউপি চেয়ারম্যান ও এক জন সিটি করপোরেশনের নারী কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার বলেন, বর্তমান সরকার সব বৈষম্য দূর করে সবাইকে সামনে এগিয়ে নিতে নানা ধরনের পরিকল্পনা নিচ্ছে এবং তা বাস্তবায়নে কাজ করছে। সরকারের পক্ষ থেকে তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে নানান কাজে লাগানো হচ্ছে। যুব উদ্যোক্তাদের জন্য বিনা জামানতে সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে। এ ক্ষেত্রে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। সরকার তাদের ব্যাপারে খুবই ইতিবাচক। তারা পথে-ঘাটে চাঁদা তুলুক বা অন্যকিছু করে বাঁচুক এটা সরকার চায় না। তবে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকেও এগিয়ে আসতে হবে। তাদের নিজেকে চাকরির জন্য যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে। এছাড়া সবাই চাকরির আশা না করে নিজেকে উদ্যোক্তা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে হবে।

এ সময় তিনি রাজশাহী বিভাগীয় প্রশাসনে যোগ্যতার ভিত্তিতে তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীকে চাকরি এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প দিয়ে তাদের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির প্রতিশ্রুতি দেন।

পরে তিনি অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি আগত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর জন্য কী ধরনের চাকরির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে সে সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন।

মেলায় ওয়ালটনসহ ১০টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের স্টল ছিল। এসব প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর আগ্রহীরা চাকরির জন্য সিভি জমা দিয়েছে। সেখান থেকে যোগ্যতার ভিত্তিতে যাচাই-বাছাই শেষে প্রার্থীদের চাকরি দেওয়ার কথা রয়েছে।

সোনালী/জেআর