ঢাকা | জুলাই ১৪, ২০২৪ - ১০:৪২ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে বিনম্র শ্রদ্ধায় জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ

  • আপডেট: Saturday, November 4, 2023 - 12:00 am

স্টাফ রিপোর্টার: ৩ নভেম্বর জেল হত্যা দিবসে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গভীর শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় যথাযথ মর্যাদায় রাজশাহীতে শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানসহ জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগর, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবর্ক অর্পণ, জাতীয় নেতা শহিদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কোরআন তেলাওয়াত, শোকর‌্যালি, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, খাবার বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় মহানগর আওয়ামী লীগের কুমারপাড়া দলীয় কার্যালয়ে স্বাধীনতা চত্বরে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। এরপর দলীয় কার্যালয় থেকে বের করা হয় বিশাল শোক র‌্যালি। শোক র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক ঘুরে কাদিরগঞ্জে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধীতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, মহানগর আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এরপর শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল। স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহ্সানুল হক পিন্টু’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা। দোয়া পরিচালনা করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য প্রফেসর বারকুল্লাহ বিন দুরুল হুদা। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সদস্য বেগম আখতার জাহান, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, নাঈমুল হুদা রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আসলাম সরকার, দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম বুলবুল সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে এবং ৩ নভেম্বর কারাগারের ভেতরে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা একইসূত্রে গাঁথা। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা ও জাতীয় চার নেতার হত্যা মামলার বিচারের রায় হয়েছে। রায় আংশিক কার্যকর হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড সহ বিদেশে পলাতক আসামীদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে সরকার। তবে সরকারের এই চেষ্টা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে ওই সমস্ত দেশ যারা খুনিদের নানা অজুহাতে ফেরত দিতে চায় না। এই হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের ব্যক্তি কারা ছিলেন, তাদের দেখতে চায় জাতি। হত্যাকাণ্ডের সুবিধাভোগী ও নেপথ্যের কুশীলবদের খুঁজে বের করার জন্য কমিশন গঠন এখন সময়ের দাবি। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর যোগ্য সহচর জাতীয় চার নেতা। যা ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে প্রমাণ হয়েছে। তারা বঙ্গবন্ধুর সাথে বৈঈমানি করেননি, অন্যায়ের সাথে আপোস করেননি। এই বিষয়গুলো আমাদের স্মরণ রাখতে হবে, মনে রাখতে হবে। আজকের এই দিনে আমি বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাকে বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি।

এর আগে শুক্রবার সকাল ১০টায় নগর ভবনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। এরপর নগর ভবন থেকে শোক র‌্যালি বের করা হয়। শোক র‌্যালি শেষে কাদিরগঞ্জে শহিদ কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। জেল হত্যা দিবস স্মরণে রাসিকের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল, কালো ব্যাজ ধারণ, কোরআন তেলাওয়াত, দোয়া মাহফিল, খাবার বিতরণ, বাদ জুম্মা নগরীর সকল মসজিদে দোয়া ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা, প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন, শোক সম্বলিত ব্যানার প্রদর্শন, কালো পতাকা উত্তোলন ইত্যাদি।

এদিকে জেল হত্যা দিবস স্মরণে সকাল থেকে শহিদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনের কর্মকর্তা, সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের ঢল নামে। নগরীর কাদিরগঞ্জে অবস্থিত শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধীতে শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি আনিসুল রহমান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার মো. সাইফুর রহমান সহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা। শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধিতে আরও শ্রদ্ধা জানান ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার মনোজ কুমার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার, বিএমডিএ চেয়ারম্যান বেগম আখতার জাহান, এলজিইডি’র প্রধান প্রকৌলী আলি আখতার হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের থানা, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনের কর্মকর্তা, সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ।

এদিকে গভীর শ্রদ্ধার সাথে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারের নেতৃত্বে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে এ দিবসটি পালন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ৩ নভেম্বর রাত ১২.০১ মিনিটে শহীদ কামারুজ্জামান মাজারে শ্রদ্ধাঞ্জলি, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার স্মরণে স্বাধীনতা চত্বরের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবর্ক অর্পণ, বাদ জুম্মা নামাজ শেষে সাহেব বাজার বড় মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত এবং অসহায় ও দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন। দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি,রাজশাহী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল।এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল ইসলাম বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর ইসতিয়াক আহমেদ, যুব ও ক্রিয়া সম্পাদক মুকিদুজ্জামান জুরাত, উপ-দপ্তর সম্পাদক পঙ্কজ দে, উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম , রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য আশরাফ উদ্দিন খান, ইসমাইল হোসেন, মুজিবুর রহমান, মাসুদ আহমেদ, অর্পণ কুমার দে প্রমুখ।

জেলা পরিষদ
৩ নভেম্বর জেল হত্যা দিবস স্মরণে জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহিদ এ. এইচ. এম কামারুজ্জামান হেনা’র কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি,রাজশাহী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল । গতকাল শুক্রবার সকাল পৌনে ৮ টায় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে চার নেতার স্মরণে দোয়া করেন তিনি । এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেজা হাসান, সদস্য-২ (তানোর) ও প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মাইনুল ইসলাম,সদস্য-৮ (চারঘাট) জোনাব আলী, সংরক্ষিত সদস্য-২ ( দুর্গাপুর , বাগমারা) সুলতানা পারভীন রিনা, সংরক্ষিত সদস্য-৩ ( পুঠিয়া, চারঘাট ও বাঘা) সাজেদা বেগম। সহকারী প্রকৌশলী এজাজুল আলম, উপ সহকারী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, প্রধান সহকারী ও ভারপ্রাপ্ত হিসাবরক্ষক এস এম আল মতিন, চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সচিব ফজলে এলাহী সোহেল, সুলতানুল আরিফিন সহ জেলা পরিষদের অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

রুয়েট
জেল হত্যা দিবসে জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)। গতকাল শুক্রবার সকালে নগরীর কাদিরগঞ্জে অবস্থিত জাতীয় নেতা শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর আলম। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর তারা সকল শহিদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানসহ জাতীয় চার নেতার রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন পুরকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. কামরুজ্জামান রিপন, ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজী (আইআইসিটি) এর পরিচালক অধ্যাপক ড. সেলিম হোসেন, গবেষণা ও সম্প্রসারণ দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. ফারুক হোসেন, ছাত্রকল্যাণ দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. রবিউল আওয়াল, ইন্সটিটিউশনাল কোয়ালিটি এ্যাসুরেন্স সেলের (আইকিউএসি) পরিচালক অধ্যাপক ড. ইমদাদুল হক, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আরিফ আহম্মদ চৌধুরী সহ বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, দপ্তর ও শাখা প্রধান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। এর আগে সকালে দিবসটি উপলক্ষে সকালে কালো ব্যাজ ধারণ করা হয়। এছাড়াও বাদ জুম্মা রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জেল হত্যা দিবসের সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড
সূর্যোদয়ের সাথে সাথে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড চত্বরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৮ টায় রাজশাহী নগরীর কাদিরগঞ্জস্থ শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামান এর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং দোয়ার আয়োজন করা হয়। সকাল সাড়ে ৮ টায় শিক্ষা বোর্ড চত্বরে চেয়ারম্যান(দায়িত্বপ্রাপ্ত) ও সচিব হুমায়ূন কবীরসহ সকল স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর মুজিব শতবর্ষ স্মারক ম্যুরালে এবং জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং ১ মিনিট নীরবতা পালন করে সকল শহিদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সকাল পৌনে ৯ রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান(দায়িত্বপ্রাপ্ত) ও সচিব হুমায়ূন কবীর এর সভাপতিত্বে মুজিব শতবর্ষ স্মারক ম্যুরাল চত্বরে জেলহত্যা দিবসের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর আরিফুল ইসলাম, কলেজ পরিদর্শক এনামুল হক ও বিদ্যালয় পরিদর্শক জিয়াউল হক। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন প্রধান মূল্যায়ন কর্মকর্তা জনাব এস.এম. গোলাম আজম। পরবর্তীতে বাদ আসর শিক্ষা বোর্ড জামে মসজিদে জাতীয় চার নেতার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহ্ফিল অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী কলেজ
সকাল ৯ টায় অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ মহোদয়ের নেতৃত্বে কলেজের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকমণ্ডলী ও শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। সকাল সাড়ে ৯ টায় জাতীয় চার নেতার অন্যতম এ এইচ এম কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এ সময় কলেজের শিক্ষকমণ্ডলী ও শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চার নেতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধে শহিদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

রাকাব
রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, প্রধান কার্যালয়, রাজশাহী-এর উদ্যোগে ব্যাংকের পক্ষ থেকে মহানগর আওয়ামী লীগ কার্যালয় সংলগ্ন স্বাধীনতা চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিরঞ্জন চন্দ্র দেবনাথ। পরবর্তীতে কাদিরগঞ্জে অবস্থিত জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান-এর সমাধিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ এবং বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া পাঠ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুর রহিম, নিরীক্ষা, হিসাব ও আদায় মহাবিভাগের মহাব্যবস্থাপক মাকসুদা নাসরীন, প্রশাসন মহাবিভাগের মহাব্যবস্থাপক (চলতি দায়িত্ব) শওকত শহীদুল ইসলাম, রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় মহাব্যবস্থাপক আতিকুল ইসলামসহ রাকাব প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় কার্যালয়, রাজশাহী; বিভাগীয় নিরীক্ষা কার্যালয়, রাজশাহী; প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউট; এসইসিপি, রাজশাহী; স্থানীয় মুখ্য কার্যালয়, রাজশাহীর কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ; রাকাব কর্মচারী সংসদ (সিবিএ); রাকাব বঙ্গবন্ধু পরিষদ, রাকাব অফিসার্স এসোসিয়েশন এবং রাকাব অফিসার্স ফোরাম এর নেতৃবৃন্দ।

আহ্ছানিয়া মিশন
আহ্ছানিয়া মিশন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শহীদুল ইসলাম, প্রকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ইকবাল মতিন, ড. আলাউদ্দিন (রেজিস্ট্রার-ভারপ্রাপ্ত), সিনিয়র সহকারী রেজিস্ট্রার আমিনুল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস