ঢাকা | জুলাই ১৯, ২০২৪ - ১:৩৬ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে দুই চিকিৎসক হত্যা: ডাক্তারদের কর্মবিরতি

  • আপডেট: Saturday, November 4, 2023 - 9:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে একই রাতে দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনার এখনও কোনো রহস্য উদঘাটন করা যায়নি। দুই খুনের ঘটনায় মামলা হলেও কোন আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিয়েও অন্ধকারে রয়েছে প্রশাসন।

এদিকে রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. গোলাম কাজেম আলী আহমেদের খুনিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে এক ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেছেন চিকিৎসকরা।

শনিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চিকিৎসকরা কর্মবিরতি করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে অবস্থান নেন। বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন বিএমএর রাজশাহী শাখা এই কর্মবিরতির কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলেন।

কর্মসূচিতে বিএমএর রাজশাহী শাখার সভাপতি অধ্যাপক ডা. এবি সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক ডা. অধ্যাপক নওশাদ আলী বক্তব্য রাখেন। ডা. নওশাদ আলী বলেন, ডা. গোলাম কাজেমের খুনিদের ধরতে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছিল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। তাই আল্টিমেটাম শেষে এই কর্মবিরতিতে যেতে বাধ্য হয়েছি। বিএমএর ঘোষণা অনুযায়ী রোববারও বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত কর্মবিরতি করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করবে চিকিৎসকরা। তিনি বলেন, রোববারের কর্মসূচি পালনের পর আমরা পুলিশের সঙ্গে কথা বলবো। এর পরও যদি ডা. গোলাম কাজেমের খুনিদের গ্রেপ্তার করতে না পারে তবে আরও বড় কর্মসূচি দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।

গত ২৯ অক্টোবর রাতে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে রাজশাহীতে দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনা ঘটে। দু জনকেই কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহতরা হলেন, রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ গোলাম কাজেম আলী আহমেদ ও নগরীর চন্দ্রিমা থানার কচুয়াতৈল এলাকার পল্লিচিকিৎসক এরশাদ আলী দুলাল।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ছাত্রশিবিরের সাবেক সভাপতি কাজেম আলীকে বাসায় ফেরার পথে বর্ণালীর মোড়ে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। আর কৃষ্টগঞ্জ বাজারের গ্রাম্য চিকিৎসক এরশাদ আলীকে নিজের ফার্মেসি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর তার লাশ পাওয়া যায় সিটি হাটের পাশের রাস্তায়।

এদিকে একই রাতে দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনার এখনও কোনো রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। দুই খুনের ঘটনায় মামলা হলেও কোন আসামি গ্রেপ্তার হয়নি। কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা নিয়ে অন্ধকারে রয়েছে পুলিশ।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও বিশেষ শাখার অতিরিক্ত উপ- কমিশনার জামিরুল ইসলাম বলেন, দুই চিকিৎসক খুনের ঘটনার তদন্ত চলছে। পুলিশের কয়েকটি টিম এটি নিয়ে কাজ করছে। আশা করছি, খুব শিঘ্রই এই দুই খুনের মোটিভ উদ্ধার এবং খুনিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সোনালী/জেআর