ঢাকা | জুলাই ১৭, ২০২৪ - ১:৫৪ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে তিন লক্ষাধিক মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত

  • আপডেট: Friday, November 3, 2023 - 11:00 pm

তৈয়বুর রহমান: দেশে এখন মারাত্মক আকার ধারণ করেছে ডায়াবেটিস রোগ। রাজশাহীসহ দেশের সর্বত্রই প্রতিনিয়ত বাড়ছে ডায়াবেটিস রোগী। শুধু রাজশাহী ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশনে চিকিৎসা নেয়া রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ১০ হাজার। এ তথ্য রাজশাহী ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের। এছাড়াও দেশে এখন ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। আর বিশ্বে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ৫৪ কোটি মানুষ। তথ্য অনুযায়ী রাজশাহীতে এখন ৩ লাখের অধিক মানুষ ডায়াবেটিস রোগ বহন করে বেড়াচ্ছে।

এ সম্পর্কে রাজশাহী ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনের উপ-পরিচালক মামুনুর রহমান বলেন, রাজশাহী ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশনে চিকিৎসা নিলেও এর বাইরে বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং চিকিৎসা না নিয়ে এর তিনগুণ মানুষ দেহে বহন করে বেড়াচ্ছেন ডায়াবেটিস, যা দিন দিন বিপজ্জনক হয়ে উঠছে।

তথ্য অনুযায়ী রাজশাহীতে এখন ৩ লাখের অধিক মানুষ ডায়াবেটিস রোগ বহন করে বেড়াচ্ছে। তিনি বলেন, ডায়াবেটিসকে ‘সব রোগের মা’ বলা হয়ে থাকে। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে একে একে শরীরে অঙ্গপ্রতঙ্গ অকার্যকর করে দেয়। আর ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে ধীরে ধীরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে রোগী।

প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন ১৮ জন মানুষ। অথচ এর ৬০ ভাগ মানুষই জানেন না যে তিনি শরীরে ডায়াবেটিস বহন করে বেড়াচ্ছেন। এ জন্য জনসচেতনতা ও খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন জরুরি বলে মনে করেন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। ডায়াবেটিসের কারণে বাড়ছে বিভিন্ন ধরনের জটিল রোগ।

ডায়াবেটিসের কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হারিয়ে যাওয়ায় বাড়ছে কিডনি ড্যামেজ, হার্ট ও স্ট্রোক করে মৃত্যুর হার। বাড়ছে চোখ নষ্ট হয়ে অন্ধত্ব ও পা-এ চলাফেরার অসুবিধাসহ যৌনরোগ। দেশে কিডনি, হার্ট এটাক ও স্ট্রোকে যে সব রোগী মারা যাচ্ছেন বেশির ক্ষেত্রে তার কারণ হিসেবে রয়েছে ডায়াবেটিস। মানুষ যত ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন পরীক্ষা করলে দেখা যাচ্ছে তার দেহে আগে থেকেই কোন না কোনভাবে বাসা বেঁধে আছে ডায়াবেটিস।

মানুষ বেঁচে থাকার জন্য দেহের গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে হাত-পা, চোখ, হার্ট, কিডনি, লিভার ইত্যাদি। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে কেউ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে প্রথমে আক্রমণ করে চোখ, পা, হার্ট, কিডনি, লিভারকে। শুধু তাই নয় ডায়াবেটিসে মানুষের যৌনক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। এ রোগ মানুষকে ধীরে ধীরে মৃত্যু মুখে ঠেলে দেয়। তাই চিকিৎসকরা বার বার খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন ও স্বাস্থ্য সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। দেশের শতশত মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারাচ্ছেন।

এ রোগে আক্রান্ত হলে প্রথমেই ধরে তার চোখ। অথচ রোগীর ডায়াবেটিসে দৃষ্টিশক্তি হারানোর সিংহভাগই জানে না তার দৃষ্টিশক্তি হারানোর খবর। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের আলোচনায় এ সব তথ্য বেরিয়ে এসেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ যাতে প্রথমে চোখের রেটিনা আক্রান্ত হয়। যাকে রেটিনা ব্যাধি বলে। রেটিনা ব্যাধিতে আক্রান্ত হলেই রক্তক্ষরণের পরেই রোগী তার দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে। এরপর সে ধীরে ধীরে অন্ধত্বের দিকে এগিয়ে যায়। এ রোগে আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টিশক্তি হারালে তা আর কোন দিন ফিরে আসে না।

এছাড়াও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে চোখের পর ধরে পা। ডায়াবেটিসের কারণে হাত-পায়ের কোন অংশ কেটে গেলে ওষুধে কোন কাজ করে না। একে একে শরীরে অঙ্গপ্রতঙ্গ অকার্যকর করে দেয়। বহু মানুষ কিডনি, ফুসফুস, হার্ট অ্যাটাক হয়ে মারা যাচ্ছেন। কিন্তু অনেক মানুষ জানে না যে এর আগে কোন এক সময় থেকে তার দেহে ডায়াবেটিস বাসা বেঁধে আছে। ডায়াবেটিস দেহের এ সব অঙ্গ ধীরে ধীরে অকার্যকর করে দিয়ে মৃত্যু মুখে ঠেলে দিচ্ছে।

সোনালী/জেআর