ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২৪ - ৯:৫৫ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে যুবলীগের সম্মেলনে যা বললেন লিটন

  • আপডেট: Tuesday, September 26, 2023 - 7:19 pm

অনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের স্যাংশনে আওয়ামী লীগের একটা পশম ছেঁড়া যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বিএনপি-জামায়াতকে দাঁতভাঙা জবাব দেওয়া হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহী নগরীর পাঠানপাড়া শিমুলতলার মোড়ে আয়োজিত জেলা ও নগর যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

লিটন বলেন, সময় এলেই যারা নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করতে বা নানাভাবে বিতর্কিত করতে ষড়যন্ত্র করেন, বিদেশিদের হাতে হাত মেলান, দেশি-বিদেশি চক্রান্তের সঙ্গে লিপ্ত হন, সেই তারা আবারও সক্রিয় হয়েছে। তারা বলে, নির্বাচনে অংশ নেব না। শর্ত দেয় শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতে হবে; কেয়ারটেকার সরকার দিতে হবে।

বিএনপি-জামায়াতের উদ্দেশে বলছি, নির্বাচনে আসবেন কি আসবেন না, সেটি আপনাদের নিজস্ব বিষয়। নির্বাচনে এলে আপনাদেরই ভালো হবে। কিন্তু না এসে নির্বাচনকে বাধাগ্রস্তের চক্রান্ত যদি করেন, তবে দাঁতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে। আর মার্কিন স্যাংশনে আওয়ামী লীগের একটা পশমও ছেড়া যাবে না।

আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর এ সদস্য বলেন, তারেক জিয়া লন্ডনে বসে নির্দেশ দেবে, আর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকারের পতন হবে, এই স্বপ্ন দেখেন না। যদি এই খোয়াব দেখেও থাকেন, সেটি কোনোদিন আলোর মুখ দেখবে না।

তারেক জিয়ার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যদি রাজনীতি করার শখ থাকে তাহলে দেশে আসেন। আপনার বিরুদ্ধে মামলা আছে, জেলে যান। আপনার নেতাকর্মীরা যদি সোচ্চার হয়, আন্দোলনের মাধ্যমে আপনাকে ছেড়ে দিতে সরকারকে বাধ্য করতে পারে, জনগণ যদি রায় দেয়, তাহলে বুঝবো আপনি দায়িত্ব নিতে পারবেন।

বিএনপির আন্দোলনের সমালোচনা করে লিটন বলেন, ২০১৪ সালে আপনারা (বিএনপি) নির্বাচন বর্জন করেছিলেন। নির্বাচন বর্জন করে জ্বালাও পোড়াও, মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা, বাসে আগুন, রেললাইন উপড়ে ফেলা, গাছ কাটাসহ ব্যাপক নাশকতা করেছিলেন। কিন্তু আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছেন। আমরা প্রমাণ করেছি, আমরা তাদের মোকাবিলা করতে পারি।

দেশের দ্রব্যমূল্য বাড়ার বিষয়ে রাসিক মেয়র বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, ডলারের নাম বাড়াসহ বিভিন্ন কারণে দেশে দ্রব্যমূল্যের দাম কিছুটা বেড়েছে। তবে সেটি আবার কমে যাবে। কিন্তু যারা এগুলোকে পুঁজি করে বাংলার মানুষকে বিভ্রান্ত করতে চায়, তারা ব্যর্থ অতীতেও হয়েছে, আগামীতেও হবে।

সম্মেলনে প্রধান বক্তা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, যুবলীগ যদি ঐক্যবদ্ধ থাকে তাহলে আগামী নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত মাঠে নামতে পারবে না। দেশের স্বার্থে, মানুষের স্বার্থে, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনা যাদের নৌকা প্রতীক দিবেন, সকলে ঐক্যবদ্ধ থেকে তাদের বিজয়ী করতে হবে।

রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সভাপতি মো. রমজান আলীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য নূরুল ইসলাম ঠান্ডু ও সদস্য বেগম আখতার জাহান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন- রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী কামাল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অনিল কুমার সরকার, রাজশাহী-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মো. মনসুর রহমান, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. আয়েন উদ্দিন, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য আবিদা আনজুম মিতা, বিশেষ বক্তা হিসেবে যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মুতিউর রহমান বাদশা, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. হেলাল উদ্দিন, রাজশাহী জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আবু সালেহসহ যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ

ত্রি-বার্ষিক এ সম্মেলনে সঞ্চালক ছিলেন- রাজশাহী জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলী আজম সেন্টু।

সম্মেলনের আগে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বেলুন-ফেস্টুন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন উদ্বোধক বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। শুরুতেই মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশ হয়।

সোনালী/জেআর