ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২৪ - ১২:২২ পূর্বাহ্ন

বাঘায় চিকিৎসার পর ২ লাখ টাকার গরুর মৃত্যু

  • আপডেট: Friday, September 22, 2023 - 9:19 pm

বাঘা প্রতিনিধি: বাঘায় চিকিৎসার পর ২ লাখ টাকার গরুর মৃত্যু হয়েছে। এ বিষয়ে চিকিৎসক সোহেল রহমানকে দায়ী করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন গরুর মালিক তারেক রহমান।

এ বিষয়ে গরুর মালিক উপজেলার বাউসা হেদাদীপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে তারেক রহমান বলেন, কিছুদিন আগে ঋণ করে গরু ক্রয় করি। গরু অন্তঃসত্তা হওয়ায় উপজেলা প্রানী সম্পদ অফিসের এফ.এ (এআই) কর্মী সোহেল রহমানকে অবগত করি।

তিনি ১৪ সেপ্টেম্বর বাড়িতে এসে গর্ভকালীন জটিলতা আছে বলে চিকিৎসা দেন। চিকিৎসা দেয়ার পর ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে গরু মারা যায়।

এতে প্রায় দুই লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে মর্মে, ২১ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

গরুর চিকিৎসা দেয়া উপজেলা প্রানী সম্পদ অফিসের এফ.এ (এআই) কর্মী সোহেল রহমান বলেন, উপজেলা ভেটেরিনারি সার্জন ডা. শরিকুল ইসলামের নির্দেশনায় চিকিৎসা দিয়েছি। পরে গরু মারা গেছে। কেন মারা গেল কিছুই বুঝতে পারছিনা।

উপজেলা ভেটেরিনারি সার্জন ডা. শরিফুল ইসলাম বলেন, সোহেল রহমান ফিল্ড এসিস্ট্যান্ট এআই কর্মী। অনেক সময় আমরা না থাকলে সে যায়। এই গরু সম্পর্কে জানিয়ে পরামর্শে নিয়ে চিকিৎসা দেন।

গরু মারা যাওযার পর স্যাম্পল সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। রির্পোট পেলে গরু মারা যাওয়ার কারণ জানা যাবে।

এ বিষয়ে উপজেলা কর্মকর্তা শারমিন আখতার বলেন, চিকিৎসার পরে গরু মারা গেছে, এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি। তবে এ বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সোনালী/জেআর