ঢাকা | ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪ - ১:২৬ পূর্বাহ্ন

রিমু দিবস: জামায়াত-শিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবি

  • আপডেট: Tuesday, September 19, 2023 - 5:00 pm

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে শ্রদ্ধার সঙ্গে পালিত হয়েছে সশস্ত্র ছাত্র শিবির ক্যাডারদের হামলায় নিহত রাবি শাখা ছাত্রমৈত্রীর নেতা শহিদ জুবায়ের চৌধুরী রিমুর ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকী।

রিমু দিবসে শিক্ষাঙ্গনে অসাম্প্রদায়িক; গণতান্ত্রিক শক্তির উত্থান ঘটানো, বৈষম্যহীন শিক্ষানীতি বাস্তবায়ন করা, শিক্ষায় সাম্প্রদায়িকতাকরণ প্রতিহত করা এবং জামায়াত-শিবিরসহ ধর্মভিত্তিক রাজনীতিকে আইন করে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছে ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন ছাত্রমৈত্রী।

রিমু দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি শোক র‌্যালি বের করে মহানগর ও রাবি শাখা ছাত্রমৈত্রী। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিণ শেষে র‌্যালিটি শের-ই-বাংলা হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে থাকা শহিদ রিমুর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ওয়ার্কার্স পার্টি ও ছাত্রমৈত্রীর নেতারা।

প্রথমে ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার পক্ষ থেকে রিমুর স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃবৃন্দ। পরে মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টি এবং রাবি ও নগর ছাত্রমৈত্রীর পক্ষ থেকে শহিদ রিমুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। শেষে রিমুর স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ছাত্রমৈত্রীর সাবেক ও বর্তমান নেতারা।

বক্তারা বলেন, শহিদ রিমুর রক্ত কখনোই বৃথা যেতে দেয়া হবে না। রিমুর স্বপ্ন অনুযায়ী বৈষম্যহীন শিক্ষানীতি বাস্তবায়নের লড়াইকে তরান্বিত করতে হবে। একইসঙ্গে রাষ্ট্রবিরোধী যেকোন ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় ছাত্রমৈত্রীকে প্রস্তুত থাকবে হবে। এসময় বক্তারা শিক্ষায় সাম্প্রদায়িকতাকরণ প্রতিহত করে জামায়াত-শিবিরসহ ধর্মভিত্তিক রাজনীতিকে আইন করে নিষিদ্ধ করার দাবি জানান।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রমৈত্রীর আহ্বায়ক আলী আম্বর অপু। বক্তব্য রাখেন, ছাত্রমৈত্রীর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি ও মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলি লিকু, ছাত্রমৈত্রীর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি ও মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, মহানগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য নাজমুল করিম অপু। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও মহানগরের সভাপতি ওহিদুর রহমান ওহি, রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক বিজয় সরকার, সহ-সভাপতি অমিত সরকার, জেলা কমিটির আহবায়ক পলাশ, রাজশাহী জেলার সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, ওয়ার্কার্স পার্টির মহানগর কমিটির সদস্য তৈয়বুর রহমান, সীতানাথ বণিক, আলমগীর হোসেন আলম, সাবেক ছাত্রনেতা ও জেলা কমিটির সদস্য কামরুল হাসান সুমন, বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী সাবেক মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক সম্রাট রায়হান, ডিগ্রি কলেজের সভাপতি আরিয়ান, সাধারণ সম্পাদক ইশাক হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা সিরাজুল ইসলাম রিপন, রুমন আলী, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় নেতা সারোওয়ার হোসেন রনি প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রমৈত্রীর যুগ্ম আহ্বায়ক মিনহাজুল ইসলাম।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস