ঢাকা | জুলাই ২০, ২০২৪ - ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

ঢাকায় এসে যাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • আপডেট: Wednesday, September 6, 2023 - 11:00 am

অনলাইন ডেস্ক: রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ আগামীকাল ঢাকা সফরে আসছেন। কাগজে কলমে দুই দিনের সফর হলেও সময়ের হিসাবে ২৪ ঘণ্টার কম ঢাকায় অবস্থান করবেন তিনি। তাঁর সফর ঘিরে তৈরি হয়েছে বিশেষ আগ্রহ।

বর্তমান বিশ্বরাজনীতি, ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা ও বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের চাপ এ আগ্রহ তৈরি করেছে। সফরসূচি অনুসারে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বৃহস্পতিবার জাকার্তা থেকে ঢাকা এসে পৌঁছাবেন। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানাবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।

ওই দিন সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে প্রথমে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপর হবে নৈশভোজ। সেখানে জাতিসংঘের মতো আন্তর্জাতিক ফোরামসহ আরও কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন তাঁরা।

সূত্র জানান, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র, রোহিঙ্গা সংকট, ইউক্রেন যুদ্ধ, জাহাজ জটিলতা, জাতিসংঘের সহযোগিতা, বাণিজ্য বৃদ্ধিসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। সফরের দ্বিতীয় দিনে শুক্রবার সকালে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন ল্যাভরভ।

এরপর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। বিকালে ঢাকা ছাড়ার আগে তিনি রাজধানীর একটি হোটেলে সাবেক সোভিয়েত আমলে বাংলাদেশের যেসব শিক্ষার্থী রাশিয়ায় গিয়ে পড়াশোনা করেছেন, তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় যোগ দেবেন।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা হলেও এ সফরের রাজনৈতিক তাৎপর্য বেশি। কারণ বর্তমান বৈশ্বিক রাজনীতি ও বাংলাদেশ নিয়ে বিশ্বকূটনৈতিক পরিস্থিতিতে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ সফর বিশেষ মাত্রা যোগ করবে।

এর বাইরে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করার জন্য বাংলাদেশের পক্ষে জোর দেওয়া হবে। এ প্রকল্পে রাশিয়ার অর্থ পরিশোধের প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা হতে পারে। অন্যদিকে নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা রুশ জাহাজকে বাংলাদেশে ঢুকতে না দেওয়ার প্রসঙ্গ আলোচনায় আনতে পারে রাশিয়া পক্ষ।

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বলেছেন, ‘আমাদের অনেক দ্বিপক্ষীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে হবে। এ ছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুও আছে।’ জানা যায়, গত বছরের ২৩ নভেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত আইওআরএ কাউন্সিলের ২২তম বৈঠকে যোগ দিতে ল্যাভরভের বাংলাদেশ সফরের কথা ছিল।

কিন্তু শেষ মুহূর্তে সফরটি বাতিল করা হয়। পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন ও রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ টেলিফোনে কথা বলেন এবং বাংলাদেশ ও রাশিয়ার মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন তিনি।

সোনালী/জেআর