ঢাকা | জুলাই ২৪, ২০২৪ - ১২:৫১ অপরাহ্ন

আর স্বতন্ত্র নয়, দলীয় প্রতীকে ভোট করবেন হিরো আলম

  • আপডেট: Friday, August 25, 2023 - 5:00 pm

অনলাইন ডেস্ক: সবমিলিয়ে তিনটি আসনের উপনির্বাচনে লড়াই করেছেন আলোচিত কনটেন্ট ক্রিয়েটর আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলম। তবে কোনোটিতেই জয়ের দেখা পাননি।

প্রত্যেকবারই স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়েছেন। এবার আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভিন্ন পথে হাঁটার বার্তা দিলেন তিনি। নির্বাচন করবেন দলীয় প্রতীকে এমনটাই জানিয়েছেন। এ সময় আওয়ামী লীগ-বিএনপিসহ চার রাজনৈতিক দলে যোগদানের প্রস্তাব পেয়েছেন বলেও জানান।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান আলোচিত এই কনটেন্ট ক্রিয়েটর।

হিরো আলম বলেন, আমি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসছি। আপনাদের জন্য একটি সুখবর আছে সেটা হলো, আমি যেকোনো একটা দলে যোগদান করছি। আমি চার দল থেকে প্রস্তাব পেয়েছি। দলগুলো হলো- বিএনপি, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি (জাপা) ও বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি)। এই দলগুলোর মধ্যে থেকে যেকোনো একটি দল থেকে আমি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আসছি।

কোন আসন থেকে নির্বাচনে করবেন-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার তো আসন তিনটি। বগুড়ায় ২টি এবং ঢাকায় একটি। দল থেকে করতে হলে তো একটা আসন থেকেই করতে হবে। দল যে আসন দেবে সেই আসন থেকেই নির্বাচন করব।

আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে কী নির্বাচনে যাবেন? এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম বলেন, সবগুলো দল যদি নির্বাচনে যায় তাহলে আমি নির্বাচনে যাব।

আরও পড়ুন: মার্কিন দূতাবাস-ইইউসহ সব জায়গায় চিঠি দেব: হিরো আলম

তিনি বলেন, এর আগে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে প্রতিবার হয়রানি-হেনস্তার শিকার হয়েছি। প্রার্থিতা বাতিল হয়ে যায়, কোর্টে যাওয়া লাগে। এবার শক্ত হয়ে নির্বাচন করতে চাই।

হিরো আলম আরও জানান, ভবিষ্যতে তিনি একটি রাজনৈতিক দল গঠন করবেন।

তিনি বলেন, রাজনীতি করতে চাইলে অবশ্যই কোনো দলের শেল্টারে থাকতে হবে। আমি নিজের যোগ্যতায় আগে যেতে চাই। তবে প্রার্থিতায় হয়রানির শিকার আর হতে চাই না। যেন আমার গায়ে কেউ হাত দেয়ার আগে একবার চিন্তা করে।

উল্লেখ্য, গত জুলাইয়ে ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে অংশ নেন হিরো আলম। ভোটগ্রহণের দিন তার ওপর হামলা চালানো হয়। এর আগে, গত ফেব্রুয়ারিতে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) ও বগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপনির্বাচনেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। তবে এ পর্যন্ত কোনোটিতেই জয়ের দেখা পাননি।

সোনালী/জেআর