ঢাকা | জুলাই ২১, ২০২৪ - ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে ঋণের চাপ সইতে না পেরে আত্মহত্যা করলেন মাছচাষি!

  • আপডেট: Wednesday, August 23, 2023 - 11:22 pm

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহীর চারঘাটে আবদুল কুদ্দুস নামে এক মাছচাষির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ বুধবার সকালে বসতবাড়ির পাশের আমগাছ থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত কুদ্দুস সদর ইউনিয়নের পঁওরা গ্রামের মৃত শমসের আলীর ছেলে।

স্বজনদের দাবি, সুদ এবং এনজিওর ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে জসিম উদ্দিন জানান, তাঁর বাবা বিভিন্ন এলাকায় চার-পাঁচটি পুকুর লিজ নিয়ে মাছ চাষ করতেন। পুকুর লিজ নিতে ও মাছের খাবার কিনতে ব্যুরো, আশা, আশ্রয় এনজিও এবং কয়েকজন সুদ কারবারির কাছ থেকে ১০-১২ লাখ টাকা ঋণ নেন। বৃষ্টি না হওয়ায় শ্যালো মেশিনের সাহায্যে পানি দিয়ে মাছ চাষ করেন।

এতে লোকসান হয় এ বছর। এ অবস্থায় এনজিও ও সুদের টাকা পরিশোধ করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। মঙ্গলবারও কয়েকজন পাওনাদার টাকার জন্য বাড়িতে এসেছিল। তবে কারা এসেছিল তা শনাক্ত করতে পারেননি।

এ অবস্থায় গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে পুকুর পাহারার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন তাঁর বাবা। পরে বুধবার সকালে বাড়ির পাশের আমগাছে লাশ ঝুলতে দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাঁর লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আব্দুল কুদ্দুস মাছ চাষে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। পাশাপাশি ঋণ পরিশোধের চাপও বাড়ছিল। এজন্য হয়তো ঋণের দায় এড়াতে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যুরো, আশা, আশ্রয় এনজিওর চারঘাট শাখার দায়িত্বশীলরা জানান, নিয়ম অনুযায়ী সময়মতো কিস্তি পরিশোধের জন্য বলা হতো। দেরিতে হলেও তিনি প্রতি মাসে কিস্তি পরিশোধ করতেন। তাঁকে অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করা হয়নি।

চারঘাট মডেল থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মো. আফজাল হোসেন বলেন, ‘আমরাও প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি অনেক বেশি ঋণের চাপে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সোনালী/জেআর