ঢাকা | জুলাই ১৯, ২০২৪ - ৬:২২ অপরাহ্ন

জনগণের অধিকার আদায়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

  • আপডেট: Friday, August 18, 2023 - 9:00 pm

দুই থানার পৃথক বর্ধিত সভায় এমপি বাদশা

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের কৃষক-শ্রমিক, মেহনতি মানুষ তথা সাধারণ জনগণের অধিকার আদায়ের প্রশ্নে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সব শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। তিনি বলেছেন, ‘‘দেশের সকল অর্জনে সাধারণ জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই ওয়ার্কার্স পার্টির অন্যতম মূল লড়াই। এ লড়াইয়ে শুধুমাত্র ওয়ার্কার্স পার্টি নয়, মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সব শক্তিকেই সামিল হতে হবে।’’

আজ শুক্রবার বিকালে শহরের হামিদপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়োজিত শাহমখদুম থানা ও গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল চারটায় শহরের রায়পাড়া স্কুল মিলনায়তনে কাশিয়াডাঙা থানা ওয়ার্কার্স পার্টির পৃথক দুই বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির লক্ষ্যে আয়োজিত এসব বর্ধিত সভায় উক্ত দুই থানা পার্টির অন্তর্গত সকল ওয়ার্ড ও তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

বর্ধিত সভায় এমপি ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ‘‘দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ওয়ার্কার্স পার্টির সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে আমাদের যা-যা করণীয়, তাই করতে হবে। দেশে এবং দেশের বাইরে দেশবিরোধী যে চক্রান্ত চলছে, তা রাজপথে রুখে দিতে ওয়ার্কার্স পার্টিকে সবসময় প্রস্তুত ও জাগ্রত থাকতে হবে। মনে রাখতে হবে, ত্রিশ লাখ শহিদের রুক্তের বিনিময়ে আমরা যে রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেছি, কোনভাবেই তা স্বাধীনতাবিরোধী কোন শক্তি ও তাদের মিত্রদের হাতে ছেড়ে দেয়া যাবে না। এটিকে অনুভব করেই আমাদেরকে আগামী দিনের রাজনৈতিক করণীয় নির্ধারণ করতে হবে।’’

সভায় দলের সঙ্গে সাধারণ জনগণের সম্পৃক্ততা আরো বৃদ্ধি করার নির্দেশনা দিয়ে ১৪ দলের কেন্দ্রীয় এ নেতা বলেন, ‘‘সাধারণ জনগণই ওয়ার্কার্স পার্টির প্রধান শক্তি। এদেশের মানুষকে নিয়েই আমাদের রাজনীতি। রাজশাহীর ইতিহাসে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতৃত্বে এমন অনেক ন্যয়-সঙ্গত আন্দোলন-সংগ্রাম হয়েছে; যেখানে এই অঞ্চলের সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ ও সমর্থন আমাদের সঙ্গে ছিল। আমরা জানি, সেটি এখনো আছে। এটিকে আরো বৃদ্ধি করতে হবে। কারণ, আগামী নির্বাচনকে ঘিরে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তি মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা পারে। মানুষ যেন বিভ্রান্ত না হয়, তাদের জনমত যেন মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির পক্ষেই থাকে; এজন্য আমাদের পার্টির সঙ্গে সাধারণ মানুষের সক্রিয় সংশ্লিষ্টতা আরো বেশি করে নিশ্চিত করতে হবে।’’

আজকের শাহমখদুম থানা ওয়ার্কার্স পার্টির বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করেন থানা কমিটির সভাপতি ইসমাইল হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, দলের কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু, মহানগর সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আবদুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, মহানগরের সদস্য সীতানাথ বনিক, সাবেক ছাত্রনেতা সম্রাট রায়হান, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সহ-সভাপতি সাকিব আল হাসান প্রমুখ। সভাটি সঞ্চালনা করেন শাহমখদুম থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম রেজা।

এর আগে গতকাল কাশিয়াডাঙা থানা ওয়ার্কার্স পার্টির বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করেন থানা কমিটির সভাপতি শামীম ইমতিয়াজ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, মহানগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য আব্দুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, মহানগর কমিটির সদস্য ও নগর যুবমৈত্রীর সভাপতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, ১ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি আদিলুজ্জামান আদিল, সাধারণ সম্পাদক শামসাদ হোসেন মডি, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী লালু প্রমুখ। সভাটি সঞ্চালনা করেন কাশিয়াডাঙ্গা থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল বাবলু।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস