ঢাকা | জুলাই ২০, ২০২৪ - ১০:১৬ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের নাক গলানো বেমানান

  • আপডেট: Friday, August 11, 2023 - 11:22 am
♦ রাজশাহীতে বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন বা রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক কোন অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগ গলানো (হস্তক্ষেপ) পুরোপুরি “বেমানান” বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা। তারা বলেছেন, “যে রাষ্ট্রটি বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠা হোক সেটিই চায়নি, সেই রাষ্ট্রের স্বার্থান্বেষী এমন হস্তক্ষেপ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি কখনোই বরদাস্ত করতে পারে না।”

গতকাল মঙ্গলবার বিকালে রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে তারা এসব কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের দালালদের প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

বিকাল ৫টায় শহরের সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের করা হয়। প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে মিছিলটি আবারও দলীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

মিছিল থেকে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ ও তাদের দালালদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে দেখা যায় ওয়ার্কার্স পার্টির নেতাকর্মীদের। পরে পার্টি অফিস চত্বরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে একেক করে বক্তব্য রাখেন মহানগর কমিটির নেতারা।

সমাবেশে বাংলাদেশ নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক কার্যক্রমের কঠোর সমালোচনা করে বক্তারা বলেন, “যুক্তরাষ্ট্রসহ সাম্রাজ্যবাদী শক্তি বিভিন্ন দেশের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে সবসময় নাক গলায়। সম্প্রতি বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও তাদের এই নীতির বহিঃপ্রকাশ ঘটছে। আমাদের মনে রাখতে হবে, আমেরিকার মতো আধিপত্যবাদী দেশ কখনোই নিজের স্বার্থ ছাড়া এক পা–ও এগোয় না।

অতএব, বাংলাদেশকে নিয়েও তাদের স্বার্থ আছে; যা তারা সেভাবে প্রকাশ করছে না। তাই দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, নিজের মাটির স্বার্থে বিদেশি সাম্রাজ্যবাদী ও আধিপত্যবাদী শক্তির এ ধরনের তৎপরতা সম্পর্কে সজাগ থাকুন।”

মার্কিনীদের নিজের দেশেই গণতন্ত্র ও মানবাধিকার বিপর্যস্ত মন্তব্য করে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা বলেন, জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের অনুচররা বাংলাদেশে নানা তৎপরতা চালাচ্ছে। এটা স্বাধীন সার্বভৌম দেশের ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্র ও মানবাধিকার দুটোই যখন প্রশ্নবিদ্ধ, তখন গণতন্ত্রের নাম নিয়ে অন্য দেশকে জ্ঞান দেয়া নীতি-নৈতিকতা বহির্ভূত।

আমরা বলতে চাই, বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ীই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মার্কিন সাম্রাজ্যবাদ ও তাদের এদেশীয় দালালেরা যদি কোন রকম অপতৎপরতার চেষ্টা করে, তবে রাজপথেই ওয়ার্কার্স পার্টি সেটিকে প্রতিহত করবে।

কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য আইনজীবী আবু সাঈদ। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামাণিক দেবু।

বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় সদস্য ও নগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য সাদরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সদস্য ও জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আশরাফুল হক তোতা, মহানগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, আব্দুল মতিন, মহানগর সদস্য ও মহানগর যুবমৈত্রীর সভাপতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, মহানগর সদস্য আব্দুর রহিম, মাসুম আক্তার অনিক, আব্দুল খালেক বকুল, সীতানাথ বণিক, আলমগীর হোসেন আলম, সাঈদ চৌধুরী, মহানগর যুবমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক শামীম ইমতিয়াজ, মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সহ-সভাপতি সাকিব আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক বিজয় সরকার প্রমুখ।

সমাবেশটি পরিচালনা করেন মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য নাজমুল করিম অপু।

সোনালী/জগদীশ রবিদাস