ঢাকা | এপ্রিল ২১, ২০২৪ - ৭:২৩ পূর্বাহ্ন

ফাঁসির প্রস্তুতি চলছে দুই আসামির, শেষ দেখা স্বজনদের

  • আপডেট: Wednesday, July 26, 2023 - 10:22 am

অধ্যাপক ড. এস তাহের আহমেদ হত্যা

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. এস তাহের আহমেদ হত্যা মামলায় দুই আসামি ড. মিয়া মহিউদ্দিন ও জাহাঙ্গীর আলমের ফাঁসি কার্যকরের প্রস্তুতি চলছে। এ লক্ষ্যে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগার কর্তৃপক্ষ চিঠি দিয়ে স্বজনদের ডেকে পাঠায়।

গতকাল সকালে ও দুপুরে দুই মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামির স্বজনরা তাদের সঙ্গে শেষ দেখা করেন বলে জানান, রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার আবদুল জলিল। আসামিদের ফাঁসি কার্যকরের লক্ষ্যে গতকাল কারাগারে রাজশাহী জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি, ডিআইজি প্রিজনসহ কারা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সভা করেন। তবে এ নিয়ে কারা কর্তৃপক্ষ কোনো বক্তব্য দেয়নি।

কারা সূত্র জানায়, রাবির সাবেক সহযোগি অধ্যাপক মিয়া মহিউদ্দিনের স্ত্রী, ছেলে, মেয়ে ও কয়েকজন স্বজন গতকাল সকাল ১০টার পরে একটি মাইক্রোবাস ও একটি প্রাইভেট কারে আসেন কারাগারে। ফরিদপুরের ভাঙ্গায় তাদের বাড়ি। রাজশাহীর কাজলার কড়ইতলা এলাকায় থাকেন মহিউদ্দিনের পরিবারের সদস্যরা। কঠোর গোপনীয়তায় মহিউদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে দুপুর ১২টার পরে তারা চলে যান। জাহাঙ্গীরের স্বজনরা কারাগারে সাক্ষাৎ করতে আসেন দুপুর ১টার পরে। সাক্ষাতের জন্য রবিবার তাদের চিঠি দেয়া হয় বলে জানা গেছে।

স্বজনদের মধ্যে ছিলেন জাহাঙ্গীরের বাবা আজিম উদ্দিন, বড় ভাই সোহরাব আলী, ছোট ভাই মিজানুর রহমান। তাদের বাড়ি রাজশাহী নগরীর খোঁজাপুর এলাকায়। বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে কারাগারের পেছন গেট দিয়ে তাদের বের করে দেওয়া হয়। কথা বলতে নিষেধ করা হয় গণমাধ্যমের সঙ্গে।

তারপরও জাহাঙ্গীরের বড় ভাই সোহরাব আলী বলেন, এটি শেষ সাক্ষাৎ বলে তাদের জানানো হয়েছে। তার ভাই শুধু কেঁদেছেন। কোনো কথা বলেননি। সাক্ষাতের সময় খাঁচা থাকায় কেউ-ই তার ভাইকে ছুঁয়ে দেখতে পারেননি।

জাহাঙ্গীর আলমের ছোট ভাই মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের পরিবারের ৩৫-৪০ জন দেখা করতে এসেছিল। গত ২০ জুলাই রাবির অধ্যাপক ড. এস তাহের হত্যা মামলায় দন্ডপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর আলমের ফাঁসি কার্যকর স্থগিত চেয়ে দায়ের করা রিট খারিজের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল দায়ের করা হয়।

আবেদনে জাহাঙ্গীরের ফাঁসি কার্যকর স্থগিত চাওয়া হয়। ১৭ জুলাই জাহাঙ্গীর আলমের ফাঁসি কার্যকর স্থগিত চেয়ে দায়ের করা রিট খারিজ করে দেন হাই কোর্ট। বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তী ও বিচারপতি আলী রেজার হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ গতকাল সকালে এ হত্যা মামলার চূড়ান্ত রায়ে মৃত্যুদন্ড পাওয়া আসামি জাহাঙ্গীরের ফাঁসি কার্যকরের প্রক্রিয়া স্থগিত চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে দেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদোন্নতি-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে খুন হন অধ্যাপক এস তাহের আহমেদ। একটি ম্যানহোল থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

সোনালী/জেআর