ঢাকা | এপ্রিল ১৬, ২০২৪ - ১:০৯ পূর্বাহ্ন

ঢাকা–১৭ || ভোট পড়ার হার ১১.৫১%

  • আপডেট: Tuesday, July 18, 2023 - 3:15 am

অনলাইন ডেস্ক: ভোট দিতে আগ্রহী মানুষের সংখ্যা সকাল থেকেই বেশ কম ছিল। কোনো কোনো কেন্দ্রে দেড় ঘণ্টায় একটি ভোটও পড়েনি।

তবে ভোটকেন্দ্রের বাইরে আওয়ামী লীগের কর্মী–সমর্থকদের জটলা ছিল। শান্তিপূর্ণ ভোটে হঠাৎ উত্তাপ ছড়ায় আলোচিত প্রার্থী আশরাফুল হোসেনের (হিরো আলম) ওপর হামলার ঘটনাটি।

ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার ঘণ্টাখানেক আগে বনানীর একটি ভোটকেন্দ্রের বাইরে হিরো আলমকে মারধর করেন নৌকা প্রতীকের ব্যাজধারী কিছু যুবক।

মারধরের পর হিরো আলমকে ধাওয়া দিয়ে এলাকাছাড়া করেন হামলাকারীরা। ঘটনাস্থলের আশপাশে পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্য উপস্থিত থাকলেও তাঁরা ছিলেন ‘দর্শকের’ ভূমিকায়।

গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত ঢাকা-১৭ আসনের উপনির্বাচনে ভোটারদের অনাগ্রহকে ছাপিয়ে শেষ পর্যন্ত আলোচনার জন্ম দেয় হিরো আলমের ওপর হামলার ঘটনাটি। এমন সময়ে এই হামলার ঘটনাটি ঘটল, যখন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) প্রাক্‌-নির্বাচন পর্যবেক্ষক দল ঢাকা সফর করছে।

তারা আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের (ডিসেম্বরের শেষে বা জানুয়ারির শুরুতে হওয়ার কথা রয়েছে) পরিবেশ এবং নির্বাচনপূর্ব রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য এসেছে।

গতকালের উপনির্বাচনে হিরো আলমের ওপর হামলার আগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী তারেকুল ইসলাম। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) প্রতি অসহযোগিতার অভিযোগ এনেছেন তিনি।

জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাত্র ছয় মাস আগে অনুষ্ঠিত এই উপনির্বাচনে ভোট হয়েছে কাগজের ব্যালটে। রাজধানীর গুলশান, বনানী ও ক্যান্টনমেন্ট এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা-১৭ আসনে।

মোট ভোটার ৩ লাখ ২৫ হাজার ২০৫ জন। ১২৪টি ভোটকেন্দ্রের ৬০৫টি ভোটকক্ষে ভোট গ্রহণ করা হয়। প্রথম আলোর চারজন প্রতিবেদক ও দুজন ফটোসাংবাদিক গতকাল সকাল আটটা থেকে ভোট গ্রহণ শেষ হওয়া পর্যন্ত (বিকেল ৪টা পর্যন্ত) ৩৩টি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

কেন্দ্রগুলো ঘুরে দেখা যায়, প্রতিটি কেন্দ্রের বাইরেই নৌকার ব্যাজধারীদের জটলা ছিল দিনভর। অধিকাংশ কেন্দ্রেই ভোটারদের কোনো লাইন ছিল না। ভোট গ্রহণের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিরা অলস সময় কাটান। হঠাৎ দু-একজন ভোটার এসেছেন।

বিশেষ করে, নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। ভোটার উপস্থিতি নিয়ে নির্বাচনী দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের অনেকে হতাশা প্রকাশ করেন।

গতকাল রাত নয়টার দিকে রিটার্নিং কর্মকর্তা এই উপনির্বাচনের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোহাম্মদ আলী আরাফাত ২৮ হাজার ৮১৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিরো আলম পেয়েছেন ৫ হাজার ৬০৯ ভোট। জাতীয় পার্টির প্রার্থী সিকদার আনিসুর রহমান পেয়েছেন ১ হাজার ৩২৮ ভোট। এই উপনির্বাচনে ভোট পড়ার হার ১১ দশশিক ৫১ শতাংশ।

সোনালী/জেআর